উচ্চম্বরে নির্বাচনী প্রচারণা না চালানোর আহ্বান রাব্বানীর

গোলাম রাব্বানঅ  © টিডিসি ফটো

আগামী পহেলা ফেব্রুয়ারি ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মেয়র এবং কাউন্সিলর প্রার্থীরা প্রচারণার মাধ্যম হিসেবে মাইকের প্রচরণাকেই বেছে নিয়েছেন। উচ্চস্বরে মাইকের মাধ্যমে প্রচারণার ফলে বিপাকে পড়েছেন এসএসসি পরীক্ষার্থীরা। আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে দেশের অন্যতম বৃহৎ এই পাবলিক পরীক্ষা।

এদিকে শিক্ষার্থীদের অসুবিধার কথা চিন্তা করে ঢাকার মেয়র এবং কাউন্সিলর প্রার্থীদের উচ্চস্বরে প্রচারণা থেকে বিরত থাকার আহবান জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাধারণ সম্পাদক এবং ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

শনিবার (২৫ জানুয়ারি) নিজের ফেসবুক পোস্টে এই আহ্বান জানান তিনি। নিচে রাব্বানীর পোস্টটি দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসের পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হল—

‘আসন্ন ০১ ফেব্রুয়ারি, ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন ঘিরে প্রচারণায় সরগরম পুরো ঢাকা শহর। আগামী ০৩ ফেব্রুয়ারী সারাদেশে শুরু হচ্ছে নবীন শিক্ষাজীবনের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ধাপ, এসএসসি পরীক্ষা। দুই সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন এলাকায় রয়েছে বিপুলসংখ্যক পরীক্ষার্থী।

পরীক্ষার আগের শেষ কটা দিন নবীন শিক্ষার্থীদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সংগত কারণেই মনে করি, পরীক্ষার্থীদের অসুবিধার কথা বিবেচনা করে সকল মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীর উচিত, নেতা-কর্মীদের সুস্পষ্ট নির্দেশনা দেয়া, নির্বাচনী প্রচারণার নির্দিষ্ট সময় ব্যাতিত সারাদিন বিকট আওয়াজে নির্বাচনী প্যারোডি গান বা উচ্চস্বরে মাইক বাজানো হতে বিরত থাকা।

আমার পরিচিত এক ভাইকে চিনি, বাসার নিচে নির্বাচনী ক্যাম্পে অবিরাম গান বাজনা আর মাইকের বিকট শব্দে ছেলের লেখাপড়ায় বেজায় অসুবিধা বিধায় বাধ্য হয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থী ছেলেকে ঢাকার বাইরে নানু বাড়ি পাঠিয়েছেন।

আমরা যাদের কাছে ভোট চাইবো, তাদের কোন অসুবিধা হোক, বিরক্তির উদ্রেক ঘটুক বা তারা বিব্রত বা অসন্তুষ্ট হোক, নিশ্চয়ই আমরা সেটা চাইবো না।’


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ