পেঁয়াজ ২৮০ টাকা, এই হচ্ছে দিন বদলের সনদ: নুরুল হক

  © টিডিসি ফটো

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহ সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর বলেছেন, ‘সরকার ১০ টাকায় চাল আর পাঁচ টাকায় লবন খাওয়াবেন বলছিল। কিন্তু আজ চাল ৫০ টাকা, পেঁয়াজ ২৮০ টাকা। এই হচ্ছে তাদের দিন বদলের সনদ।’

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের উদ্যোগে পেঁয়াজ এবং চালসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য লাগামহীন বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ বিক্ষোভ মিছিল ও  সমাবেশে তিনি একথা বলেন।

আজ রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিক্ষোভ মিছিল শাহবাগ থেকে শুরু হয়। মিছিলটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার শাহবাগে গিয়ে শেষ হয়। এসময় দুই শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

নুরুল হক বলেন, ‘আজকে জিডিপির কথা বলেন, তখন আমরা দেখতে পাই চার কোটির বেশি বেকার আমার দেশে।’ এসময় যারা অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে তারা আতঙ্কে থাকে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, ‘জনগন ভোট দিয়ে তাদেরকে নির্বাচিত করেছে, জনগন চাইলে টেনে-হিঁচড়ে নামাতে পারবে। তাদের বিরুদ্ধে সমালোচনা করলেই পেটুয়া বাহিনী ছাত্রলীগ দিয়ে হামলা করে।’

পরিষদের আহবায়ক হাসান আল মামুন সরকারকে দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হলে পদত্যাগ করার আহবান জানান। যুগ্ম-আহবায়ক রাশেদ খান বলেন, ‘পদ্মাসেতুর কথা বলে বলে ঘুম পাড়িয়ে রাখা হয়েছে বাংলাদেশের মানুষকে। কিন্তু মানুষ নিত্য প্রয়োজনে যা খায় তা নিয়ন্ত্রনে রাখতে পারেনি সরকার।’

৫ দফা দাবী সামনে রেখে এ প্রতিবাদ সমাবেশ করেন তারা। সেগুলো হল- অনতিবিলম্বে দ্রব্যের দাম জনগণের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখতে হবে; অসাধু সিন্ডিকেট ভেঙে আইনের আওতায় আনতে হবে; নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণ করতে হবে; আমদানী নির্ভরশীলতা কমাতে হবে; বাণিজ্যমন্ত্রীর লাগামহীন বক্তব্যের জন্য তাকে পদত্যাগ করতে হবে।

এসময় তারা ‘সস্তায় পেয়াজ দে, নইলে গদি ছাইড়া দে’, ‘বাণিজ্যমন্ত্রী করে কি, খায়দায় ঘুমায় নাকি’, ‘জনবিরোধী সিন্ডিকেট, ভেঙ্গে দাও গুড়িয়ে দাও’, ‘উন্নয়নের বাংলাদেশ, পেঁয়াজ কিনতে টাকা শেষ’, ‘এই মুহুর্তে দরকার, জনগনের সরকার’ এমন স্লোগান দেন।


মন্তব্য