জনগণের আস্থা অর্জনে কাজ করবে পুলিশ

  © ফাইল ফটো

জনগণের আস্থা অর্জনে পুলিশ কর্মকর্তাদের কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, দেশের চলমান উন্নয়ন ধরে রাখার পাশাপাশি বিপদে জনগণের বন্ধু হয়ে কাজ করতে হবে। রোববার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাজশাহীর সারদায় পুলিশ একাডেমিতে ৩৬তম বিসিএস সহকারী পুলিশ সুপারদের প্রশিক্ষণ সমাপনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

এসময় জঙ্গি, সন্ত্রাস আর মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকার পাশাপাশি দেশের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিতে নবীন পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেন শেখ হাসিনা।

দেশের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা, জনগণের জানমাল ও সম্পদের নিরাপত্তা বিধান এবং অপরাধ নিয়ন্ত্রণ ও দমনে অগ্রণী ভূমিকা পালনকারী বাহিনী বাংলাদেশ পুলিশ। অনুষ্ঠানে শুরুতে প্রধানমন্ত্রী গাড়িতে করে নবীন সহকারী পুলিশ সুপারদের সমাপনী কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করেন। পরে বিভিন্ন ইউনিটের সুসজ্জিত অভিবাদন ও সালাম গ্রহণ করেন।

এছাড়া প্রশিক্ষণে বিভিন্ন বিষয়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারী শিক্ষানবিশ সহকারী পুলিশ সুপারদের মাঝে পদক বিতরণ করেন সরকার প্রধান পরে নবীন অফিসারদের উদ্দেশে দেয়া বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী জনগণের নিরাপত্তায় নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের নবীন কর্মকর্তারা আজকে যারা প্রশিক্ষণ নিয়ে যাচ্ছেন তাদেরকে আমি এটাই আহ্বান করবো সততা, নিষ্ঠা, একাগ্রতার সাথে আপনাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করবেন। পুলিশ বাহিনী অত্যন্ত দক্ষতার সাথে তাদের ওপর দায়িত্ব পালন করছে বলেই আজকে আমরা জঙ্গিবাদ দমন করতে পেরেছি, সন্ত্রাস নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছি, মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে এবং এ অভিযান চলবে।

সম্প্রতি পুলিশে নতুন নিয়োগ স্বচ্ছতার সঙ্গে হওয়ায় এ বাহিনীর প্রশংসা করেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের পুলিশ বাহিনীতে নতুন যে রিক্রুট করেছে সেখানে একটি লোকও কোনো ধরনের দুর্নীতি বা ঘুষ দেয়ার কথা বলতে পারেনি। এত স্বচ্ছতার সাথে পুলিশ বাহিনীতে যে নিয়োগ হয়েছে, সে জন্য আমি পুলিশ বাহিনীকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাই। জনগণের আস্থা-বিশ্বাস অর্জন করবার জন্য এই পদক্ষেপটা আমি মনে করি খুব গুরুত্বপূর্ণ। আগামিতেও আপনারা সেভাবে এগিয়ে যাবেন।

সরকার পুলিশ বাহিনীকে উন্নত ও আধুনিকায়ন করতে বিশেষায়িত পুলিশ, প্রশিক্ষণসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে বলে জানান সরকার প্রধান শেখ হাসিনা।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ