বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখবে শিক্ষার্থীরা

শিক্ষার্থীদের মধ্যে থাকা অবারিত সম্ভাবনার কথা উল্লেখ করে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, ‘বাংলাদেশ তথা বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠায় আগামী দিনে ভূমিকা রাখবে শিক্ষার্থীরা। আর এজন্যে শিক্ষকদের প্রধান দায়িত্ব পালন করতে হবে।’

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকালে রাজধানীর ডেমরার মাতুয়াইলে শামসুল হক খান স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং হেভেনলি কালচার ওয়াল্ড পিস রেসটোরেশন অফ লাইট (এইচ ডব্লিউ পিএল) আয়োজিত ওয়ার্ল্ড পিস সামিটে এ কথা বলেন তিনি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষা উপমন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের শান্তিকামী, নৈতিক মূল্যবোধ সম্পন্ন মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। মানুষ শান্তিতে না থাকলে পৃথিবীর যে সম্ভাবনা তা নষ্ট হবে।’

তিনি বলেন, শান্তি প্রতিষ্ঠার এই প্রচেষ্টার সঙ্গে শামসুল হক খান স্কুল ও কলেজ কর্তৃপক্ষ সম্পৃক্ত হয়েছে। তারা শিক্ষার্থীদের মধ্যে শান্তির সংস্কৃতি ছড়িয়ে দিচ্ছে। এটি মহৎ উদ্যোগ। বাংলাদেশ শান্তিপ্রিয় দেশ। এদেশের রাষ্ট্রীয় নীতিই হচ্ছে শান্তির পক্ষে। যে কারণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতির মূল মর্মবাণী তৈরি করেছেন ‘সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব কারো সহিত শত্রুতা নয়’। জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একই নীতি ও আদর্শ অনুসরণ করে সকল প্রতিবেশি দেশসহ আন্তর্জাতিক আসনে সুসম্পর্ক বজায় রেখেছেন।

শামসুল হক খান স্কুল ও কলেজের প্রিন্সিপাল ড. মাহাবুব রহমান মোল্লার সভাপতিত্বে ম্যানেজিং কমিটির চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান মোল্লা, বৈশাখী টেলিভিশনের প্রধান বার্তা সম্পাদক সাইফুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য