ছাত্রলীগ সেক্রেটারির শিক্ষক হিসেবে আমি লজ্জিত

১। বুয়েট ছাত্রলীগের সেক্রেটারি মেহেদী হাসান রাসেলের শিক্ষক হিসেবে আমি লজ্জিত। ২০১১ - ১৩ পর্যন্ত সে আমার নিবিড় সান্নিধ্যে একাডেমিক শিক্ষা গ্রহন করলেও মানুষ হবার শিক্ষা আমি তাকে দিতে পারিনি। তার ব্যাচের অসংখ্য মেধাবী শিক্ষার্থী বুয়েট, মেডিক্যাল, ঢাবি সহ বিভিন্ন উচ্চশিক্ষালয়ে সগৌরবে অধিষ্ঠিত। কিন্তু উচ্চমাধ্যমিকে সুশৃঙ্খল, রাজনীতিমুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে, শিক্ষকদের নিবিড় তত্ত্বাবধানে বেড়ে ওঠা এই কোমলপ্রাণ মেধাবীদের একটি বড় অংশ প্রায় সবকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়ছে। (সবাই বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠনে পোস্টেড)। আমার ফেসবুকে অসংখ্য পদধারী এড থাকা সত্ত্বেও আমি অভিনন্দন জানাইনি। কারণ এই পদবীগুলো অর্জন করার সময়ই অনেকে নিজেকে হারিয়ে ফেলে বড় ভাইয়ের অন্ধ আনুগত্যে।

২। যতদিন পর্যন্ত বিনয়, ভালবাসা ও শ্রদ্ধাবোধ থাকবে ততদিন পর্যন্ত সকল পদবী সম্মানের সাথে ঠিকে থাকবে। আমি তার মধ্যে ক্ষমতা ও উগ্রতা গত ৯ মাসে লক্ষ্য করে তাকে সতর্ক করেছি অনেকবার। কিন্তু তার বড় পদবী তাকে বুঝতে দেয়নি।

৩। প্রত্যেকট Wave এর একটি Maximum Peak তৈরি হয়। ‌ যদি তরঙ্গটি ধীরেধীরে বড় হয় তাহলে তার পরিপক্কতার সাথে সমাপ্তি ঘটে। ব্যতিক্রম কেবল দ্রুততম সময়ে ক্ষমতার অপব্যবহারে অথবা অনৈতিক উপায়ে লাফিয়ে ওঠা peak স্বল্পতম সময়ে কালের রসাতলে পতিত হয়।

৪। Nothing goes unpaid.

দুনিয়াতেই আমার, আপনার সকলের কর্মের কিছু বিচার / ফল আস্বাদন লাভের সুযোগ হতে পারে। তবে সসীম পৃথিবীর পর যদি অসীম জগতের বিচারের মাঠ কায়েম না হয় তাহলে সসীমের লাভ/ ক্ষতির সকল পাওনা সমাপ্ত। কিন্তু যদি বিচারের মাঠ সত্যিই কায়েম হয়ে যায় তাহলে অসীম জগতের লাভ / ক্ষতির (cctv - recorded) প্রদর্শন সহ সকল পাওনার হিসেব আমাকে, আপনাকে ন্যায্যভাবে পরিশোধ করতে হবে।

চলুন প্রস্তুতি গ্রহণ করি।

লেখক: প্রভাষক, ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ, ময়মনসিংহ


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ