ছোট্ট বাচ্চার সঙ্গে ঈদ করতে শিক্ষক বাবার হৃদয়স্পর্শী আবেদন

আমি আপনাদের প্রিয় ভাই নূর হোসেন বলছি, গত কিছুদিন যাবত আমার উপর এবং আমার পরিবারের উপর যে জুলুম অত্যচার চলছে তা সংক্ষেপে তুলে ধরছি— অক্সফোর্ড আইডিয়াল স্কুলের বাতিলকৃত ক্যালেন্ডারের একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ভুলকে দীর্ঘ ৮ মাস পর সামনে নিয়ে এসে ইতিহাসের এক অমানবিক নির্যাতন চালানো হচ্ছে আমার উপর। আমার পরিবারের উপর। সর্বশেষ আমার প্রাণের প্রতিষ্ঠান স্কুলটাও জ্বালিয়ে দিল।

স্কুলের ক্যালেন্ডারে ১৫ আগস্ট মহান জাতীয় শোক দিবসকে অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে (আনন্দ দিবস) ছাপানোর যে ভুল হয়েছে তার ব্যাখ্যা আমি নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার ইউএনও (UNO) মহোদয়কে দিয়েছি। তিনি তাতে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। কিন্তু প্রশাসনের কিছু ব্যক্তির সহায়তায় দুর্নীতিবাজ এক চেয়ারম্যান আমার উপর প্রতিশোধ নিতেই এমন ঘটনাগুলো করছেন।

তিনি ছাত্রলীগের ভাইদের বিভ্রান্ত করে নিজের ফায়দা লুটছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ব্যক্তিগতভাবে আমি খুব ভালবাসি এবং শ্রদ্ধা করি।

আমার স্কুল প্রতিবছর ১৫ আগস্ট অত্যান্ত শ্রদ্ধার সাথে জাতীয় শোক দিবস পালন করে আসছে। কিন্তু অন্যের ভুল আমার উপর চাপিয়ে আমাকে হত্যার গভীর ষড়যন্ত্র করছে।

আপনারা জানেন এজন্য স্কুলের পক্ষ থেকে ক্ষমা চাওয়া হয়েছিল। গত ৬ আগস্ট রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত আমার ২২ দিনের শিশু বাচ্চাসহ আমার স্ত্রীকে থানায় আটকে মানসিক নির্যাতন করা হয়েছে। থানার ওসি বলেছে, আমার কোন দোষ নেই, আমি শুধু ওনার সাথে দেখা করতাম। কিন্তু কেন? এর কোন সন্তোষজনক জবাব তিনি আমাকে দিতে পারেননি। তাহলে এটা কি গভীর ষড়যন্ত্রের আলামত নয়?

গত ৭ আগস্ট আমার স্কুলটাতে আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দিয়েছে কতিপয় দুষ্কৃতকারী। সকল মানুষের প্রিয় প্রতিষ্ঠানটি জ্বালিয়ে দিল কার স্বার্থে? আমি নোয়াখালী-৩ আসনের এমপি ও চৌমুহনী পৌরসভার  মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। এলাকার অভিভাবক হিসাবে আপনারা প্রকৃত ঘটনা তদন্ত করে প্রকৃত দোষীর বিচার করুন। আমারসহ সকল মানুষের প্রিয় প্রতিষ্ঠানটি রক্ষা করুন।

সামনে ঈদুল আযহা। প্রতিবছর আমার পরিবার কুরবানি দেই, কিন্তু এই বছর আমর পরিবারের সবার ঈদ পালন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। আমার স্ত্রী সন্তান, ভাই, মা একত্রিত হতে পারছি না। আমার পরিবার আজ ছন্নছাড়া, বাড়ি ঘরে যেতে পারছি না। জানি না আমার পরিবারের সর্বশেষ অবস্থান কি হয়?

আমার ছোট বাচ্চারা যারা বাবাকে ছাড়া ঘুমায় না আজ তারা তাদের বাবাকে দেখছেই না। তাদের বাবার জীবন হুমকির মুখে। তারা কিভাবে ঈদ করবে? আপনারা যারা আমাকে ভালবাসেন তাদের অনুরোধ করবো আপনারা আমার পরিবার ও স্কুলের পাশে দাঁড়ান। আমাকে সহায়তা করুন। আমি জীবনে মানুষের উপকার ছাড়া ক্ষতি করিনি। আমার জনপ্রিয়তা আমার জন্য কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে।

পরিশেষে দোয়া করুন আল্লাহ যেন আমার পরিবার ও স্কুলকে রক্ষা করেন।

লেখক: অধ্যক্ষ, অক্সফোর্ড আইডিয়াল স্কুল, বেগমগঞ্জ, নোয়াখালী।


মন্তব্য