ছাত্রকে পিটিয়ে গোপনে আটকে রাখে মাদরাসা প্রধান শিক্ষক

প্রতীকী

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে মাদরাসা প্রধানের বিরুদ্ধে এক ছাত্রকে প্রহার করে অসুস্থ অবস্থায় গোপনে আটকে রাখার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ করে ওই ছাত্রের মা। পরে ছাত্রকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনা জানাজানির পর থেকে অভিযুক্ত শিক্ষক পলাতক রয়েছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পাথরপুবি ইউনিয়নের পশ্চিম মইদাম এলাকার নবাব আলীর ছেলে এরশাদুল হক সাগর ওই মাদরাসার পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র।

এরআগে বুধবার বিকেলে তাকে বেদম প্রহার করেন মাদরাসার মৌলভী হারুন অর রশিদ, এতে অসুস্থ হয়ে পড়ে সাগর। পরে তাকে মাদরাসা থেকে দুই কিলোমিটার দূরে বাঁশঝানি ক্যাম্পের মোড়ের মৌলভীর বাড়িতে আটকে রাখে। পরদিন বিকেলে খবর পায় সাগরের পরিবারের লোকজন তার বাড়িতে গেলে অসুস্থ ছেলে ছাড়া আর কাউকে দেখতে পায় না। তারা ছেলেটিকে নিয়ে এসে ভূরুঙ্গামারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

ভূরুঙ্গামারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএইচএম মাগফুরুল আব্বাসী জানান, একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ