ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক আটক

 দিদারুল ইসলাম দিদার
দিদারুল ইসলাম দিদার

ফেসবুকে গুজব রটিয়ে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগে নোয়াখালীর সদর উপজেলায় অভিযান চালিয়ে দিদারুল ইসলাম দিদার (২৬) নামের এক মাদ্রাসা শিক্ষককে আটক করেছে র‌্যাব। এসময় তার কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

সোমবার দুপুরে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানান র‌্যাব। আটককৃত দিদারুল ইসলাম দিদার সদর উপজেলার উত্তর ফকিরপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি দারুল ইসলাম মডেল মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক।

র‌্যাব জানায়, আটককৃত দিদার দীর্ঘদিন যাবৎ তার ব্যবহৃত মোবাইলসহ নানা রকমের ইলেক্ট্রিক ডিভাইস ব্যবহার করে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে বিভ্রান্তিমূলক বিভিন্ন ছবি, ভিডিও ও তথ্য সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে প্রচারসহ ধর্মীয় উস্কানিমূলক মিথ্যা ও বিদ্বেষপূর্ণ স্ট্যাটাস দিয়ে গুজব রটিয়ে ধর্মীয় ও সামাজিক সম্প্রীতি নষ্টের চক্রান্ত করে আসছে। এমনকি প্রধানমন্ত্রীকে হেয় প্রতিপন্ন করে ফেসবুকে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে বিভ্রান্তি মূলক স্ট্যাটাস দিয়েছে। সে দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ধরণের উস্কানিমূলক মিথ্যা বক্তব্য প্রচার করে জনমনে আতংক ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করে আইন শৃংখলা পরিস্থিতি অবনতি ঘটানোর অপরাধে রবিবার দিবাগত রাতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়েছে।

র‌্যাব-১১, সিপিসি-৩ লক্ষ্মীপুর ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক পুলিশ সুপার নরেশ চাকমা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আটককৃত দিদারুল ইসলাম দিদারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


মন্তব্য