অপরাধ বিজ্ঞানে বিশ্বের দ্বিতীয় সেরা লেখক হলেন রাজুব ভৌমিক

ড. রাজুব ভৌমিক  © সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের বুক অথরিটি সাম্প্রতি সারা বিশ্বে অপরাধ বিজ্ঞান বিষয়ের সেরা ১২টি পুস্তকের তালিকা প্রকাশ করেছে। যেই তালিকায় ৪.৬৪ পয়েন্ট নিয়ে প্রথম স্থানে রয়েছে পামেলা জে সরম ও স্টিফেন জি তিব্বতের লেখা ‘ইন্ট্রোডাকশন টু ক্রিমিনোলজি-হোয়াইট ডু দ্যা ডু ইট’। আর ঠিক তার পরের অর্থাৎ ৪.৫৯ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশী আমেরিকান লেখক ড. রাজুব ভৌমিকের বই ‘লিডিং থিউরিজ অব ডেলিনকুয়েন্ট বিহেভিয়ার এ্যান্ড ক্রিমিনোলজি’।

যদিও আর মাত্র ০.৫ পয়েন্টের জন্য লেখক রাজুব ভৌমিকের বইটি প্রথম স্থান পায়নি। তবুও প্রথম স্থান না পেলেও  আপসোস না থাকার কথাও জানা গেছে । 

ওয়েবসাইটির সূত্রে জানা গেছে, যেসব বইগুলো সাধারণত ইলন মাস্ক, মার্ক জুকারবার্গ, ওয়ারেন বাফেট থেকে শুরু করে বিশ্বের খ্যাতনামা ব্যক্তিদের কাছ  থেকে সুপারিশ-প্রাপ্ত হয় সেগুলোকেই গুণগতমানের ভিত্তিতে এই তালিকা প্রকাশ করা হয়

রাজুব ভৌমিক বলেন, “এ বইটির প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের একজন কর্মকর্তা ফোন করে আমাকে এ তথ্য জানিয়েছেন। এই স্বীকৃতি সত্যিই সম্মানের এবং এই অর্জন বাংলাদেশের সবার। বহুজাতিক এ সমাজে পিছিয়ে থাকা একটি অঞ্চলের লেখকের গবেষণাধর্মী গ্রন্থকে এতটা গুরুত্ব দেয়ায় আমি গভীরভাবে কৃতজ্ঞ সংশ্লিষ্টদের প্রতি। এরফলে লেখালেখির প্রতি আরো বেশী উৎসাহিতবোধ করছি।’

রাজুব ভৌমিক বলেন, ‘আমি মনের আনন্দে লিখি। আর লিখে মানুষের ভালোবাসা অর্জন করতে পেরেছি বলে দায়িত্বটা আরো বেড়ে গেলো।’ 

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার সংবাদমাধ্যমে তিনি আরও জানান, প্রথম স্থান না পেলেও তার কোন আপসোস নেই। তিনি অপরাধ বিশেষজ্ঞ হিসেবে নিউইয়র্কের একটি কলেজে অধ্যাপনারত আছেন। 

উল্লেখ্য, কবি রাজুব ভৌমিকের জন্ম বাংলাদেশের নোয়াখালী জেলার শ্রীনদ্দি গ্রামে ১৯৮৮সালে। গত পাঁচ বছর ধরে জন জে কলেজ, সিটি ইউনিভার্সিটি নিউইয়র্কে তিনি অপরাধবিদ্যা, আইন ও বিচার বিভাগে শিক্ষকতা করছেন। তাঁর প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা ১৫টি, যার মধ্যে তিনটি সিটি ইউনিভার্সিটির পাঠ্যসূচির অন্তর্ভুক্ত।

ড. রাজুব ভৌমিক আয়না সঙ্গীত ও আয়না সনেটের জনক। আয়না সনেট সৃষ্টির মাধ্যমে তিনি সারাবিশ্বে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন। তার প্রকাশিত গ্রন্থের সংখ্যা ২৫ টিরও বেশী। তার প্রকাশিত তিনটি গ্রন্থ সিটি ইউনিভার্সিটি অব নিউইয়র্কে পাঠ্যপুস্তক হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে।


মন্তব্য