বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী থাকা অবস্থায় নীলের জনপ্রিয় উপস্থাপক হওয়ার গল্প

নীল হুরের জাহান একজন জনপ্রিয় টেলিভিশন উপস্থাপক। নিউজ টোয়েন্টিফোর, বাংলাভিশন,আরটিভিসহ বেশ কয়েকটি টিভিতে উপস্থাপনা করেন। উপস্থাপনার পাশাপাশি অভিনয় ও মডেলিং করেন। একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিংযে ৩য় বর্ষে পড়াশোনা করছেন। তাঁর জীবনের নানা বিষয়ে জানতে তাঁর সাক্ষাতকার নিয়েছেন- এম এম মুজাহিদ উদ্দীন। সাক্ষাতকারে উঠে এসেছে তার মিডিয়ায় যাত্রা, জীবন,মৃত্য, যৌনতা, ভবিষ্যত পরিকল্পনা নিয়ে ভাবনা।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাস: মিডিয়ায় যাত্রার শুরুটা কিভাবে?
নীল হুরের জাহান: আমি একটা ফ্রেন্ডসহ রেডিওতে গিয়েছিলাম গেস্ট হিসেবে। তারপর ওখান থেকে তাঁরা আমাকে আরজে হিসেবে পছন্দ করে। তারপর ওই রেডিও থেকে আমাকে কল করে আরজে হিসেবে কাজ করার জন্য। তারপর ভয়েস টেস্ট দিয়ে সেখানে জয়েন করি। সেখানে ৬ মাসের মত কাজ করেছি। আমি ট্রাভেলিং করতাম। ট্রাভেলিং গ্রুপের এক ভাইয়া ছিলেন যিনি বাংলাভিশনের গ্রাফিক্স ডিজাইনার। তারপর তিনি আমাকে বললেন আমি আমি উপস্থাপক হিসেবে কাজ করতে চাই কিনা? বাংলাভিশনে সিভি দিয়েছিলাম। অডিশন দিয়ে তারা আমাকে সিলেক্ট করে। বাংলাভিশনে প্রায় ৪ বছরের মত কাজ করছি। তারপর এনটিভিতে শো করা শুরু করলাম। তারপর গাজী টিভি, নিউজ টোয়েন্টিফোর, আরটিভিসহ বেশ কয়েকটি টিভিতে কাজ করেছি।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাস: আপনার কাছে জীবনের মানে কী?
নীল হুরের জাহান: লাইফ ইজ অ্যা জার্নি। জীবন মানে প্রতিদিন পরিবর্তন। প্রতিটি মুহূর্তে নতুন কিছু। এই জার্নিতে অনেক মুখ-যার কিছু হারিয়ে যায় আর কিছু রয়ে যায় সাথে। জীবন হলো একটা ভালোবাসা। জীবন হলো সুযোগ। জীবনে খারাপ ভালো সবকিছু থাকবে। তবে মনে রাখতে হবে যতক্ষণ জীবন আছে ততক্ষণ কিছু করার সুযোগ আছে।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাস: আপনার কাছে প্রেমের মানে কী?
নীল হুরের জাহান: প্রেমের আবার মানে হয় নাকি? এটা একটা অনুভূতি। একেকজনের কাছে একেক রকম হয়ে ধরা দেয়। তবে আমি বিশ্বাস করি, প্রেমটা থাকতেই হবে। ‘ইউ হ্যাভ টু বি ইন লাভ’ হোক সেটা কোনো মানুষের সাথে হোক সেটা প্রকৃতির সাথে, হোক কবিতার বই বা প্রিয় গান। এই অনুভূতি থাকলে মন সুন্দর হয়।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাস: মৃত্যুকে আপনি কিভাবে দেখেন?
নীল হুরের জাহান: মৃত্যু সবার জন্যই অবধারিত। এখানে আমাদের কারোর কিছু করার নেই। এই জায়গাটাতে আমরা সবাই অসহায়। এটাকে নিজের মত করে দেখার কিছু নাই। সবাইকে এর মুখোমুখি হতে হবে। আর আমি মৃত্যু ব্যাপারটা খুব ঘৃণা করি। শুনতে খারাপ শোনালেও একটা মৃত্যু উল্টে পাল্টে দেয় মানুষের জীবন। একচুয়ালি জীবনের সবচেয়ে কঠিন সত্য হচেছ মৃত্যু।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাস: যৌনতা নিয়ে আপনার ভাবনা কী?
নীল হুরের জাহান: যৌনতাকে স্বাভাবিকভাবেই দেখি। ‘ইটস হিউম্যান ট্রেইঁস’ । এটা খুবই সাধারন জিনিস। ট্যাবু হিসেবে দেখার সুযোগ নেই। তবে যৌন শিক্ষাটা সঠিক হওয়া জরুরী। পরিবার থেকেই জিনিসটা সম্পর্কে শেখানো উচিত।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাস: আপনার ভবিষ্যত পরিকল্পনা কী?
নীল হুরের জাহান: ভবিষ্যত পরিকল্পনা বলতে ‘লার্নিং’। আমি আরো শিখতে চাই, নিজেকে আরো ঠিকঠাক করতে চাই। আমি নিজে যতবেশি জানব কিছুটা হলেও আমার কাজে তা প্রকাশ পাবে। আমি সারাবিশ্ব ভ্রমণ করতে চাই আর নিজেকে আরো বেশি প্রকাশ করতে চাই।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাস: আপনাকে ধন্যবাদ।
নীল হুরের জাহান: আপনাকেও ধন্যবাদ।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ