স্বল্প খরচের ভেন্টিলেটর তৈরি করল ইউআইইউ

  © টিডিসি ফটো

নোবেল করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় সারা বিশ্বেই এখন ভেন্টিলেটরের ব্যাপক চাহিদা কিন্তু সেই অনুপাতে যোগান অনেক সীমিত। সারা বিশ্বে লকডাউন চলাতে চিকিৎসা সরঞ্জাম উৎপাদন এবং আমদানিতেও রয়েছে অনেক জটিলতা। অন্যদিকে ভেন্টিলেটর ব্যয়বহুল হওয়ায় মহামারিতে চাহিদা অনুযায়ী যোগান দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে স্বল্প উন্নত বা উন্নয়নশীল দেশগুলোর।

এমন পরিস্থিতিতে ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির এইআইএমএস ল্যাব ও এএনটিটি রোবোটিক্স ল্যাবের একদল গবেষক স্বল্প খরচের ভেন্টিলেটর তৈরিতে সফল হয়েছেন।

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়টির নিজস্ব গবেষণাগারে প্রতি সপ্তাহে ২০ টি মান সম্মত ইমারঞ্জেসি ভেন্টিলেটর তৈরি করা সম্ভব। বাংলাদেশ সরকার অথবা আঞ্চলিক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে চুক্তিতে উৎপাদন কারখানার সমন্বয়ে বড় আকারের উৎপাদনে যেতে সক্ষম এই উদ্ভাবিত ভেন্টিলেটরটি। বর্তমানে ভেন্টিলেটরটি ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল এর জন্য রয়েছে।

এআইএমএস ল্যাব এর ফাউন্ডার ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ডা: খোন্দকার এ মামুন। নতুন উদ্ভাবিত ভেন্টিলেটর নিয়ে অনেক আশাবাদী। তিনি মনে করেন বাংলাদেশের করোনা যুদ্ধে অনেক সাহায্য করবে এটি। কেননা যন্ত্রটি দেশীয় প্রযুক্তি দিয়ে তৈরি হয়েছে, যার ফলে খরচ ৪০ হাজার টাকার মধ্যে থাকবে।

উল্লেখ্য ‘এএনটিটি রোবটিক্স মেড ইন বাংলাদেশ’ স্লোগানে ২০১৭ সাল থেকে রোবটিক্স নিয়ে রিসার্স ও প্রোডাক্ট তৈরি করছে। যেখানে তারা শিক্ষার্থীদের জন্য বাংলাদেশে তৈরি রোবট দিয়ে প্রোগ্রামিং শিক্ষার কার্যক্রম করে এবং দেশ ও দেশের বাইরে টুলস গুলো বিক্রি করেন। এএনটিটি রোবটিক্সকে বাংলাদেশ সরকারের আইসিটি ডিভিশন ও স্টার্টআপ বাংলাদেশ অর্থায়ন করে সাহায্য করছে।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ