ডুয়েটের আবিষ্কার: ঘরের বাইরে থেকেও বন্ধ হবে চলন্ত লাইট-ফ্যান

  © টিডিসি ফটো

বিদ্যুৎ চালিত সকল ডিভাইস নিয়ন্ত্রণ করার প্রযুক্তি আবিষ্কার করেছে ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (ডুয়েট) একদল মেধাবী শিক্ষার্থী। তাদের আবিষ্কৃত প্রযুক্তিটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘ইজিয়ার’। রোবোমেন্ট ল্যাব নামে একটি সংগঠনের উদ্যোগে রোবটিক্স শিখতে আগ্রহী এমন ২১১ জন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে সাথে নিয়ে এ প্রযুক্তি আবিষ্কার করা হয়।

সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু ইন্টারন্যাশনাল কনফারেন্স সেন্টার এ অনুষ্ঠিত ডিজিটাল ডিভাইস এন্ড ইনোভেশন এক্সপো- ২০১৯ এ প্রদর্শিত হয়েছে এ প্রযুক্তিটি। ডুয়েট শিক্ষার্থীদের আবিষ্কৃত এ প্রযুক্তি মেলায় দেখতে আসা উৎসুক জনতার নজর কেড়েছে।

আবিষ্কৃত প্রযুক্তিটির ব্যাখ্যা দিয়ে ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী ওয়ালিদ আহমেদ মাহফুজ বলেন, প্রযুক্তিটির সাথে ওয়াইফাই, মডিউল এবং মাইক্রোকন্ট্রোলার আছে। এর সাথে আছে রিলে মডিউল। যার মাধ্যমে আমরা বাসার চলন্ত লাইট, প্যান, এসি কিংবা বিদ্যুৎ নিয়ন্ত্রিত যেকোনো কিছু নিয়ন্ত্রণ করতে পারবো।

তিনি বলেন, এটা আমাদের প্রথম ফিচার। যেটায় ৬টা ফেস নিয়ে কিউব বানানো হয়েছে। কিউবের ভিতর ৬টা অরিয়েন্টেশন থাকবে। যার প্রত্যেকটাতে লোগো লাগানো আছে। কিউবের ভিতরে থাকা সেন্সর লোগোগুলোর মাধ্যমে ফেস ডিটেক্ট করে এটি কাজ করবে।

এ কিউব চালু করতে যেকোনো সুইজবোর্ডে তাদের আবিষ্কৃত একটা ডিভাইস ব্যবহার করতে হবে। এই ডিভাইস দিয়ে ১৯ প্রকারের সেন্সর, ২২ প্রকারের ইলেক্ট্রিক্যাল লোড, ৬ প্রকার কমিউনিকেশন মডিউল ও ৫ প্রকার লজিক গেইট চালানো সম্ভব।

মেলায় এটি প্রদর্শন করে ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, গাজীপুর এর মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী সুকান্ত শর্মা বিপ্লব, ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সিদরাত মুনতাহা নুর প্রান্ত, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের জারিন তাসনিম, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বীপ চৌধুরী, সংগঠনটির উপদেষ্টা হিসেবে ছিলেন, ডুয়েটের অতিরিক্ত রেজিস্টার প্রফেসর ড. আসাদুজ্জামান চৌধুরী।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ