নতুন কীট আবিষ্কার করলেন দুই বছরের শিশু

  © সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের কেনটাকি অঙ্গরাজ্যে ২০১৬ সালের গ্রীষ্মের এক দুপুরে মায়ের সঙ্গে বাগানের ফুলে পানি দিচ্ছিল দুই বছরের সিলভি। পানি দিতে দিতে তারা হঠাৎ দেখতে পেল অদ্ভুত ধরনের একটি (ক্ষুদ্র পতঙ্গ) মাটি থেকে বের হয়ে আসছে। এমন কীট তারা এর আগে কখনো দেখেনি।

সিলভির মা লরা সুলিভান বেকার একজন কীটতত্ত্ববিদ, জীববিদ্যার সহকারী অধ্যাপক। গাছে থাকে, এমন কীট নিয়ে পিএইচডি করেছেন। মাটি থেকে উঠে আসা কীটটি দেখে তিনি বুঝতে পারলেন, তারা মা-মেয়ে মিলে নতুন প্রজাতির একটি কীট আবিষ্কার করেছেন। পরে মেয়ের নামে সঙ্গে মিলিয়ে কীটটির নাম দেন ‘হেবেটিকা লিভাই’।

সুলিভান বলেন, এই ধরনের কীট সাধারণত গাছে থাকে। কিন্তু তা হুট করে মাটি থেকে বের হতে দেখে আমি বেশ অবাক হয়েছিলাম। সঙ্গে সঙ্গে ছবি তুলে তা আমার পিএইচডি গবেষণার তত্ত্বাবধায়ককে পাঠিয়ে দিয়েছিলাম।

সুলিভান পরের কয়েক মাস ধরে ফুলের বাগানে খোঁড়াখুঁড়ি করেন। সেখান থেকে এই প্রজাতির কীট সংগ্রহ করে সেগুলোর ছবি তোলেন। পরে ছবি গুলো পাঠান যুক্তরাষ্ট্রের কৃষি বিভাগে। কৃষি বিভাগ কয়েক মাস ধরে ব্যাপক গবেষণার পর নিশ্চিত করে, সুলিভান ও তার মেয়ে সম্পূর্ণ নতুন প্রজাতির কীট আবিষ্কার করেছেন।

নতুন আবিষ্কার নিয়ে সুলিভান বেশ খুশি। মেয়ে সিলভির বয়স এখন পাঁচ বছর। তিন বছর আগের ঘটনা তেমন কিছু মনে করতে পারছে না সে। তবে মায়ের আনন্দ দেখে সেও বেশ উল্লসিত।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ