এইচএসসি পরীক্ষা ‘পেছাচ্ছে’

  © ফাইল ফটো

দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির আরও অবনতি হওয়ায় আগামী ১ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা পেছানোর সিদ্ধান্ত আসতে পারে দুই একদিনের মধ্যে। এদিকে পরীক্ষা পেছানোর জন্য শনিবার লিখিতভাবে মন্ত্রণালয়কে জানিয়েছে শিক্ষাবোর্ডগুলো। করোনা ভাইরাসের কারণে ইতিমধ্যে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে।

দেশের এমন অনিশ্চিয়তার মধ্যে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব নয় বলে মনে করছে শিক্ষা বোর্ডগুলো। তাই আগামী ১ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া এইচএসসি পরীক্ষা পেছানোর জন্য মন্ত্রণালয় বরাবর লিখিত দিয়েছে শিক্ষাবোর্ডগুলো।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্র জানিয়েছে, আগামীকাল সোমবার (২৩ মার্চ) এ বিষয়ে আলোচনা হতে পারে।

তবে পরীক্ষার্থীদের বাড়িতে বসেই পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে পরামর্শ দিয়েছেন তারা। পরীক্ষা শুরুর আগমুহূর্তে সর্বশেষ সিদ্ধান্ত জানানো হবে।
ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক বলেন, পরিস্থিতি অবনতি হলে পরীক্ষা নেওয়া কঠিন। এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। শিগগিরই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

তিনি জানান, আসন্ন এইচএসসি পরীক্ষার সব প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে সারা দেশে প্রশ্নপত্রও পাঠানো হয়ে গেছে। তবে, করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার কারণে, পরীক্ষা সম্পন্ন হওয়া নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। শিক্ষার্থী, অভিভাবক, শিক্ষকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মধ্যেও বিষয়টি নিয়ে দুঃশ্চিন্তা দেখা দিয়েছে।

তিনি বলেন, এইচএসসি পরীক্ষা সংক্রান্ত সিদ্ধান্তটি আজ বা আগামীকালের মধ্যেই শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দেয়া হবে।

এদিকে, সূচি অনুযায়ী আগামী ১ এপ্রিল এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। তবে শনিবার (২১ মার্চ) এই পরীক্ষার প্রবেশপত্র আগামী ২৮ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে দেশের সব শিক্ষাবোর্ড।

শনিবার (২১ মার্চ) ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক এস এম আমিরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ