ডুজা সম্পাদকের খোঁজখবর নিতে হাসপাতালে ছাত্রদল নেতাকর্মী

  © টিডিসি ফটো

ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ও তার কর্মীদের হামলায় গুরুতর আহত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (ডুজা) সাধারণ সম্পাদক এইচ এম ইমরানের শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নিতে হাসপাতালে গেলেন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। আজ রবিবার ছাত্রদল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আহবায়ক কমিটির সদস্য মিনহাজ আহমেদ প্রিন্সের নেতৃত্বে ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান সংগঠনটির ১৫-২০ জন নেতাকর্মী।

এসময় এইচ এম ইমরানের ওপর বর্বরোচিত হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে দোষীদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান প্রিন্স। একইসাথে ছাত্রদল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে সাংবাদিক নেতা এইচ এম ইমরানের পরিবারের কাছে সহমর্মিতা প্রকাশ করেন।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মহেশপুর উপজেলা ছাত্রদলের সদ্য সাবেক আহবায়ক আব্দুল্লাহ আল ফারুক বাবু, মহেশপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজ ছাত্রদলের সদ্য সাবেক আহবায়ক ইয়াকুব আলী, মহেশপুর পৌর ছাত্রদলের সদ্য সাবেক আহবায়ক আশরাফুল হক খান তপু, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল মালেক, যাদবপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের আহবায়ক মোহাম্মদ পাভেল, ফতেপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের সভাপতি রাশেদুল ইসলাম, পৌর ছাত্রদল নেতা মাসুম বিল্লাহ প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, গতকাল শনিবার কুরবানির দিন গরীবদের মাংসের নির্দিষ্ট অংশ যথাযথ বণ্টন না করার প্রতিবাদ করায় ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর থানার অন্তর্গত বাঁশবাড়ি ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আজিজুর রহমান ও তার লোকজন ডুজা সম্পাদক ইমরান ও তার পরিবারের সদস্যদের মারধর করে। এ সময় ইমরানের মাথা ফেঁটে যায়।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ