লকডাউনে বেশিরভাগ সময় ঘুম— নিজের কতটা ক্ষতি করছেন জেনে নিন

  © প্রতীকী ছবি

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ফলে দীর্ঘ সময় ধরে চলমান অঘোষিত লকডাউনে তেমন কোনো কাজ নেই। টিভি বা মোবাইল ফোনের স্ক্রিনে তাকিয়ে থাকতে থাকতে ক্লান্ত হয়ে বেশিরভাগ সময়ই কাটছে ঘুমিয়ে।

আবার একটা কথাও প্রচলিত রয়েছে, সুস্থ থাকার জন্য পর্যাপ্ত ঘুমাতে হবে। কিন্তু এই পর্যাপ্ত মানে একজন মানুষের সুস্থ থাকার জন্য সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুমই যথেষ্ট বলে মনে করেন চিকিৎসকেরা।

এই সময়ের এক প্রতিবদনে বলা হয়, অতিরিক্ত ঘুম শরীরের জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে। আর কী কী ক্ষতি পারে জেনে নিন—

১) সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে, যারা ৯ ঘণ্টা ও তার বেশি সময় ঘুমান, তাদের মধ্যে বিষণ্ণতার ঝুঁকি বেড়ে যায়।

২) বেশি সময়ের ঘুম মস্তিষ্কের কাজ করার ক্ষমতা হ্রাস করে।

৩) কানাডার কুইবেক বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় বলা হয়, রাতে আট ঘণ্টার বেশি ঘুমের কারণে রক্তের গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা হারায় দেহ। এতে টাইপ ২ ডায়াবেটিসের শঙ্কা বেড়ে যায়।

৪) আট ঘণ্টার বেশি সময় নিয়মিত ঘুমোলে হৃদযন্ত্রের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৫)  ওজন বাড়ার অন্যতম কারণ অতিরিক্ত ঘুম।

প্রসঙ্গত, গত ৮ মার্চ দেশে প্রথমবারের মতো নভেল করোনাভাইরাসের আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হলেও ২৬ মার্চ থেকে দেশের সকল সরকারি-বেসরকারি অফিসসমূহে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। তবে জরুরি প্রয়োজনে সেবা দেয়ার কাজে নিয়োজিত অফিসগুলো খোলা রয়েছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ