টাকা না আসায় বিপাকে ফিলিস্তিনের শিক্ষার্থীরা, খাবারের দায়িত্ব নিলেন ডিসি

করোনা পরিস্থিতিতে নিজ দেশ থেকে টাকা না আসায় বিপাকে পড়েছেন বরিশাল শেরে ই বাংলা মেডিকেল কলেজে অধ্যায়নরত বিদেশি শিক্ষার্থীরা। কলেজে ৩৩ জন বিদেশি শিক্ষার্থী রয়েছে। এর মধ্যে ২৮ জন ফিলিস্তিন এবং বাকি ৫ জন নেপালের নাগরিক।

তাদের নিয়মিত খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে বলে জানালেন কলেজের অধ্যক্ষ। দরকার হলে বিদেশি শিক্ষার্থীদের খাদ্য সহায়তা দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

শেরে ই বাংলা মেডিকেল কলেজের মঈনুল হায়দার ছাত্রাবাসে থাকেন বিদেশী শিক্ষার্থীরা । প্রতিমাসে দেশ থেকে মাসিক খরচের টাকা পাঠান তাদের অভিভাবকরা। কিন্তু কারোনার কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে চলছে প্রায় অচলাবস্থা। ব্যাংক বন্ধ থাকায় টাকা পাঠান বন্ধ হয়ে গেছে।আর এ কারণে উদ্বিগ্ন ফিলিস্তিনের শিক্ষার্থীরা।

জেনারেল ইউনিট অব ফিলিস্তিন প্রেসিডেন্ট স্টুডেন্ট হাতেম রাবা বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে ফিলিস্তিনের সব কিছু বন্ধ থাকায় আমাদের কাছে কোন টাকা পাঠাতে পারছে না পরিবার।

মেডিকেলের অধ্যক্ষ জানালেন, বিদেশী শিক্ষার্থীদের এ মুহুর্তে কোন সমস্যা নেই । শেরে ই বাংলা মেডিকেল অধ্যক্ষ প্রফেসর ডাঃ অসিত ভূষন দাস বলেন, খাবার থেকে শুরু যেকোন কিছুরই সমস্যা ওদের হবে না। আমরা খেলে তারাও খাবে।

এদিকে প্রয়োজন হলে বিদেশি শিক্ষার্থীদের খাদ্য সহায়তা দেয়া হবে বলে জানালেন, জেলা প্রশাসক। জেলা প্রশাসক এস.এম অজিয়র রহমান বলেন, যারা বিদেশি শিক্ষার্থী আছে তাদের খাবার ব্যবস্থা আমরা করবো।


মন্তব্য