২৬ মার্চ ২০২০, ১৪:৩০

মা বানাচ্ছে মাস্ক, মেয়ে স্যানিটাইজার

নিজের বানানো মাস্ক হাতে অধ্যাপক গুনশান (ডানে), মেয়ে তানসু

বিশ্বে করোনা ভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করার পর মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলছে। এর প্রভাব বাংলাদেশেও বেশ পড়েছে। বুধবার পর্যন্ত সরকারি হিসেবে পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে এবং সার্বিক পরিস্থিতিতে সহযোগিতা করতে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

করোনা ভাইরাসে দেশের সবকিছু স্তব্ধ হয়ে আছে। ১৬ কোটি মানুষের জনজীবনে নেমে এসেছে এক ভয়াবহ সংকটের মুহূর্ত। এই দুঃসময়ে সরকারি-বেসরকারি প্রচেষ্টার পাশাপাশি শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে নিজেদের সামর্থ অনুয়ায়ী ব্যক্তিগত উদ্যোগে সামাজিকভাবে এগিয়ে আসছেন অনেকে। হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক এবং ডাক্তারদের জন্য ব্যক্তিগত সুরক্ষা পোশাক (পিপিই) বিতরণ করছেন বিনামূল্যে।

আর করোনা ভাইরাসের এখনো কোন ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়নি। তাছাড়া এটি সংক্রমিত রোগ। এ প্রাণঘাতী ভাইরাস বহন করছে এমন কারোও নিকট আসলে নিজেও সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তাই করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় দেশের সাধারণ মানুষের পাশে এগিয়ে এসেছেন নওগাঁ কারিগরি ও বাণিজ্যিক কলেজের অধ্যাপক গুনশান মনি এবং তাঁর মেয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী তানসু সিলার খান। এছাড়া নওগাঁ জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতিও তানসু। তারা দুই প্রজন্মের হয়েও একই্ উদ্দেশ্যে কাজ করছেন।

করোনার বিস্তার রোধ করতে সরকারি অফিস-আদালত থেকে শুরু করে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এসময় ঘরে বসে করোনার ঝুঁকিতে থাকা সাধারণ মানুষের জন্য মাস্ক তৈরি করছেন গুনশান মনি। অপর দিকে কলেজের ছুটি পেয়ে বসে নেই মেয়ে তানসু। তিনিও হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরির কাজে নেমে পড়েছেন। উদ্দেশ্য দেশের মানুষকে করোনার ভয়াবহতা থেকে রক্ষা করা। এবং করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে জয়ী হওয়া।

সাধারণ মানুষকে ভরসা দিতে এবং অন্যদের উৎসাহিত করত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নিজের তৈরি করা মাস্ক হাতে নিয়ে দাঁড়ানো একটি ছবি শেয়ার করেছেন অধ্যাপক গুনশান। ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, আমার মেয়ে তানসু সিলার খান রংপুর মেডিকেল থেকে এমবিবিএস ফাইনাল পরীক্ষায় পাশ করে ইন্টার্নি শুরু হওয়ায় আগে বাসায় থেকে তৈরি করছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার। আর আমি গুনশান মনি নওয়াঁ কারিগরি ও বাণিজ্যিক কলেজের বাংলার অধ্যাপক বাসায় সেলাই করে তৈরি করছি মাস্ক। জিনিসগুলো পৌঁছে দিচ্ছি সাধারণ মানুষের কাছে। আমি আশাবাদী করোনার সাথে যুদ্ধে আমরা জয়ী হব...