দু’সপ্তাহ লড়াই শেষে হার মানলেন বুটেক্স ছাত্র

বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুটেক্স) ৪৩ তম ব্যাচের শিক্ষার্থী সজিবুর রহমান সাগর (২১) মৃত্যুবরণ করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহী রাজিউন)। গত দুই সপ্তাহ ধরে অসুস্থতার সাথে লড়াই করে বুধবার (২৭ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

সজিবুর রহমান সাগর ২০১৬-১৭ সেশনে বুটেক্সের টেক্সটাইল মেশিনারি ডিজাইন ও মেইনটেইনেন্স ডিপার্টমেন্টে ভর্তি হয়ে লেভেল-৩, টার্ম-২ এ অধ্যয়নরত ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি টাঙ্গাইলে।

সাগরের সহপাঠীরা জানান, দুই সপ্তাহ থেকে ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়া, জন্ডিস ও টাইফয়েডে আক্রান্ত ছিলেন সাগর। প্রথমে তাকে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালের আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় তার কিডনিতে ও ফুসফুসে ইনফেকশন ধরা পড়ে।

সাগরের বন্ধু তাওহীদ মেহেদি বলেন, অক্টোবরের শেষের দিকে বুটেক্সের শহীদ আজীজ হলের কিছু শিক্ষার্থীর সঙ্গে বান্দরবানে ট্যুরে গিয়েছিলেন সাগর। গত ২ নভেম্বর ট্যুর শেষে ক্যাম্পাসে ফেরার পর ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হন তিনি। এরপর একে একে তার ডেঙ্গু, জন্ডিস ও টাইফয়েড ধরা পড়লে তাকে অ্যাপোলো হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি না ঘটায় তাকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ২৭ নভেম্বর আনুমানিক সন্ধ্যা ৬ টার দিকে চিকিৎসাধিন অবস্থায় সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

তিনি আরও বলেন, পড়াশুনার পাশাপাশি সাগর বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী কর্মকাণ্ডে যুক্ত ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ বুটেক্স শাখার উপ ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন। এছাড়াও তিনি বাঁধনে কাজ করতেন।

এদিকে, সজিবুর রহমান সাগরের এ অকাল মৃত্যুতে বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুটেক্স) শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

 


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ