মেসি-রোনালদোকে নিয়ে দুটি খবরই মিথ্যা!

  © সংগৃহীত

ব্রাজিলিয়ান ফুটবল মহাতারকা রোনালদিনহোকে জাল কাগজপত্র নিয়ে প্রতিবেশী দেশ প্যারাগুয়েতে প্রবেশ করার পর গ্রেফতার করেছে। আর এ সংবাদেই জেল থেকে ছাড়িয়ে আনতে ৪০ লাখ ডলার খরচ করবেন মেসি। বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস মোকাবিলায় তার মালিকানাধীন সবকটি হোটেলকে হাসপাতালে পরিণত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। সম্প্রতি দুই ফুটবল মহাতারকা মেসি ও রোনালদোকে নিয়ে এমন দুটি খবর বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। তবে সবশেষ জানা যায়, এ দুটি খবররের একটিও সত্য নয়।

এর আগে প্যারাগুয়ের সংবাদমাধ্যম ভার্সাসের বরাতে জানা যায়, জাল কাগজপত্র নিয়ে প্যারাগুয়েতে অবস্থান করায় বুধবার (৬ মার্চ) রাতে রোনালদিনহোকে গ্রেফতার করেছে সেদেশের পুলিশ। পত্রিকাটি আরো জানায় এই মহাতারকার হোটেল রুম তল্লাশি চালিয়ে জাল পাসপোর্টসহ অন্যান্য ভুয়া কাগজও পেয়েছে প্যারাগুয়ের পুলিশ। এরপর জেলে যেতে হয় রোনালদিনহোকে। পরে রোনালদিনহো জামিন আবেদন করলেও জামিন পাননি।

এর মধ্যে পেরুর সংবাদমাধ্যম লিবেরো তাদের এক খবরে জানায়, রোনালদিনহোকে মুক্ত করতে প্রায় ৪ মিলিয়ন ডলার খরচ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সাবেক বার্সা সতীর্থ মেসি। পরে খবরটি অন্যান্য কয়েকটি সংবাদমাধ্যমেও প্রকাশ হয়। মুহূর্তেই খবরটি ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক মাধ্যমে। তবে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম স্পোর্ত আরেকটি খবরে জানালো, রোনালদিনহো জেলে যাওয়ায় মেসি দুঃখিত হলেও, তার জন্য আইনজীবী নিয়োগ বা জামিন ফি বাবদ ৪০ লাখ ডলার খরচের কোনো পরিকল্পনা নেই মেসির।

এদিকে, স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মার্কা আরেকটি খবরে দাবী করে, কভিড-১৯ এর চিকিৎসার জন্য ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর মালিকানাধীন সিআর৭ হোটেলগুলো আপাতকালীন হাসপাতালে পরিণত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। মার্কা জানায়, করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট কোভিড-১৯ রোগের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা পাওয়া যাবে এসব হাসপাতালে। তবে এ খবরটিও সত্য নয় বলে টুইট করেন কয়েকজন তারকা সাংবাদিক। পরে খবরটি তাদের ওয়েবসাইট থেকে নামিয়ে দেয় মার্কা।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ