গায়ক আসিফের বই আসছে বইমেলায়

  © টিডিসি ফটো

প্রায় দুই দশক ধরে বাংলা সঙ্গীতাঙ্গনে গানে গানে রাজ করছেন আসিফ আকবর। তার সমসাময়িক অনেকেই যেখানে হাল ছেড়ে দিয়েছেন সেখানে তিনি যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সুর তুলে যাচ্ছেন কণ্ঠে। করছেন রাজত্ব। যাকে ভালোবেসে সবাই বাংলা গানের যুবরাজ বলেই চেনে।

গায়ক হিসেবে এখনও তারুণ্যের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাজিমাত করছেন আসিফ। শুধু তাই নয়, পর্দায় হাজির হয়েছেন নায়ক হয়েও। সেখানেও দেখিয়েছেন চমক। এবার এই গায়ক আসছেন লেখক হিসেবে। আসছে আসছে বইমেলায় লেখক হিসেবেও আত্মপ্রকাশ করতে চলেছেন বাংলা গানের এই যুবরাজ।

নিজের লেখালেখি এবং আসন্ন বই নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়েছেন জনপ্রিয় এই গায়ক। সেখানে তিনি লেখেন, লেখালেখি আমার কাজ নয়, আমি পড়তে ভালোবাসি। এবার সেটা যে কোনো বই, ধর্মগ্রন্থ কিংবা পত্রিকা হতে পারে, অংক-বিজ্ঞান ছাড়া। ছোটবেলা থেকেই লাইব্রেরী যাওয়া আসার চর্চা ছিল। আমার নিজেরও বড় লাইব্রেরী রয়েছে। আমাদের পরিবারে সবারই কম-বেশি পড়াশোনার অভ্যাস আছে। বিশেষ করে আম্মার কাছ থেকেই আমাদের এই চর্চাটা শেখা।

আমাদের ছোট্ট গ্রামটির নাম পোটকরা। অনেক পশ্চাৎপদ এই গ্রাম থেকেই উঠে এসেছেন আমার বাবা। চরম প্রতিকূলতা পেরিয়ে তিনি হয়েছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েট। উচ্চশিক্ষিত হওয়ার অদম্য আকাঙ্খা থেকেই সমস্ত বাধা পায়ে মাড়িয়ে সফল হয়েছিলেন আব্বা। আমাদের পরিবার উনার পদাঙ্ক অনুসরণ করেই আজ সমাজে প্রতিষ্ঠিত। আমার শৈশব-কৈশোরের দুরন্ত সময়গুলো কেটেছে পোটকরায়। কুমিল্লা শহরে পড়াশোনা এবং বেড়ে উঠলেও পোটকরার মাটির সোঁদা গন্ধ আজও আমার গায়ে মেখে আছে।

আমি গায়ক আসিফ হয়ে নাম কামিয়েছি। আমার সাফল্যে উচ্ছ্বসিত আমাদের একান্নবর্তী পরিবার এবং গ্রামের মানুষ। পৃথিবীর বহু দেশ ভ্রমনের সৌভাগ্য হয়েছে এই গানের সুবাদে। আমেরিকার ম্যানহাটানে পৌঁছেই নীল আর্মষ্ট্রংয়ের মতো বিজয়ের পতাকা উড়িয়েছি মনে মনে, ভুলেও ভুলে যাইনি পোটকরা গ্রামটাকে।

ফেসবুকে আসার মাধ্যমে আমার ভক্তদের সঙ্গে যোগাযোগের একটা রাস্তা হলো। আমি ভাবলাম অহেতুক ফুচকা চটপটির ছবি না দিয়ে কিছু লিখি। জানা-অজানা মানুষের সঙ্গে ভাবের আদান-প্রদান শুরু হলো এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। কেউ কেউ প্রস্তাব করলেন বই লিখতে, যে কথাটা আমলে নিলে আমার কোনোদিন লেখাই বের হতো না। মনে যা আসে, তাই লিখি সহজ সাবলীল ভাষায়- ছোট গল্পের মতো করে। ঔপন্যাসিক সাদাত হোসাইনের উৎসাহে শেষ পর্যন্ত আমার বই ‘পোটকরা টু ম্যানহাটান’ আসছে ২০২০- এর বইমেলায়।

আমার ফেসবুক স্ট্যাটাসগুলো যাচাই-বাছাই করে বইটি বাজারে আনছে অন্যধারা প্রকাশনী। শুরু হতে যাচ্ছে আমার আরও একটি নার্ভাস ইনিংস।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ