আমি চলচ্চিত্র ছেড়ে দেব: আরিফিন শুভ

অভিনেতা আরিফিন শুভ  © ফাইল ফটো

আজ ৮ ডিসেম্বর দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার গ্রহণ করবেন অভিনেতা আরিফিন শুভ। এর আগে ২০১৭ সালের জন্য শাকিব খানের সঙ্গে যৌথভাবে সেরা অভিনেতা বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি।

পুরুষ্কারের প্রাপ্তি নিয়ে এই অভিনেতা জানান, ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবি যে আমার জীবনের সেরা অভিনীত ছবি, সেই মানদণ্ডে যাব না। তাই রোমাঞ্চিত আমি। কৃতজ্ঞ সৃষ্টিকর্তার কাছে। কৃতজ্ঞ ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবির পুরো টিমের কাছে, দর্শকের কাছে। তবে এখানে একটা কথা বলতে চাই, ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিতে সেরা অভিনয় করেছেন তাসকিন রহমান। এই স্বীকৃতি তাসকিনের সঙ্গে ভাগাভাগি করতে চাইব। ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিতে অভিনয় করে আমি যদি শ্রেষ্ঠ অভিনয়ের পুরস্কার পাই, তাহলে তাসকিনেরও পাওয়া উচিত। কারণ, আমি এ পর্যন্ত ২৩ থেকে ২৪টি ছবিতে কাজ করেছি। কিছুটা হলেও অভিনয় বোঝার অভিজ্ঞতা হয়েছে আমার।

প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার গ্রহণ করার বিষয়ে আরফিন শুভ জানান, দেশের প্রধানের কাছ থেকে আমি শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কার গ্রহণ করব, এর চেয়ে বড় আনন্দ আর কী আছে! তবে এই পুরস্কার নেওয়ার দৃশ্য যখন ভাবছি, তখন আমার সেই ময়মনসিংহ থেকে ঢাকায় আসার জার্নিটা চোখে ভেসে উঠছে। ২৫৭ টাকা হাতে নিয়ে ঢাকা এসেছিলাম। এসে দেশপ্রধানের কাছ থেকে জাতীয় পুরস্কার গ্রহণ করব, কোনো দিন ভাবিনি।

1 (5)

এদিকে আরফিন শুভ অভিনীত ‘মিশন এক্সট্রিম’ ছবির প্রথম পোস্টার লুক এসেছে। এ বিষয়ে তিনি জানান, অপ্রিয় হলেও সত্য কথাটা সব সময় বলে ফেলি। সিনেমার অনেক পোস্টারের বিষয়ে গলাকাটা ফটোশপের বিষয়টি চিরকালই অভাগা কিছু দর্শক বলে আসছেন। ‘মিশন এক্সট্রিম’-এর পোস্টারের সবকিছুই যে আসল, তা অনেক হতভাগা দর্শক বিশ্বাস করতে চাইছেন না। আমাদের ছবিকেও পোস্টারে গলাকাটা ফটোশপ বলা হচ্ছে। কিন্তু বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের ইতিহাসে একটি চরিত্রের জন্য ছবির প্রধান চরিত্রের অভিনয়শিল্পীকে এভাবে নিজেকে ভাঙতে দেখিনি। বাজি ধরতে পারি, চলচ্চিত্রের ইতিহাসে যদি কেউ একটি চরিত্রের জন্য এভাবে সময় দিয়ে নিজেকে ভাঙতে পেরেছেন, আমি চলচ্চিত্র ছেড়ে দেব। নিজের শারীরিক পরিবর্তন এভাবে কেউ করেননি। কিন্তু দুঃখের বিষয়, এটি অনেকই বিশ্বাস করছেন না, মানছেন না। তবে বিশ্বাস করবেন টিজার, ট্রেলার আসার পর। ছবি মুক্তির আগে আমার ১১ মাসের প্রস্তুতির শারীরিক পরিবর্তনের ভিডিও প্রকাশ করা হবে। তখন আমার পুরো পরিবর্তন দেখতে পাবেন সবাই। আমার রুটিন, ডায়েট, শরীরচর্চা, কত দিন লেগেছে চরিত্রের প্রস্তুতি—সবকিছুই ওই ভিডিওতে দেখা যাবে। তাই পোস্টারের প্রথম লুক নিয়ে একদিকে আনন্দ পাচ্ছি, অন্যদিকেও দুঃখও পাচ্ছি।

 


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ