বিসিবি অনিয়মের বিরুদ্ধে ব্যতিক্রমধর্মী প্রতিবাদে ক্রিকেটখোর

দেশের ক্রিকেটভক্তদের অনলাইনে ক্রিকেটের আলোচনার সবচেয়ে বড় প্লাটফর্ম ক্রিকেটখোর। দেশের ক্রিকেট নিয়ে গঠনমূলক আলোচনায় বরাবরই সরব ফেসবুকের এই গ্রুপটি। ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হওয়া গ্রুপটির বর্তমান সদস্য সংখ্যা চার লক্ষ ৫২ হাজার। দেশের বিভিন্ন জেলায় নিয়মিত ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট নানা কর্মকান্ডের সাথে জড়িত ক্রিকেটখোরের সদস্যরা।

আফগানস্থানের সাথে বাংলাদেশের লজ্জাজনক হারে সারাদেশের ক্রিকেটভক্তদের মত ক্ষোভে ফেটে পড়েছে ক্রিকেটখোর কমিউনিটির ভক্তরা। প্রতিবাদের মাধ্যম হিসেবে ফেসবুককে বেছে নিয়েছেন তারা। গ্রুপটির ওয়ালে সবধরণের ক্রিকেটীয় আলোচনা বন্ধ করে দিয়েছেন গ্রুপটির সদস্যরা। মূলত বিসিবির যাবতীয় অনিয়মের বিরুদ্ধে মৌন প্রতিবাদের এ পন্থাকে বেছে নিয়েছে ফেসবুকভিত্তিক গ্রুপটি।

এ ব্যাপারে ডেইলি ক্যাম্পাসের সাথে কথা হয় ক্রিকেটখোরের অ্যাডমিন মাহবুব এলাহীর। তিনি প্রতিবেদককে জানান, বোর্ড দেশের ক্রিকেটকে ধ্বংসের পায়তারা করছে। ইয়ং ট্যালেন্টদের প্রতি উদাসীনতা, ক্লাব রাজনীতি, তৃণমূলে দুর্নীতি, দেশের ক্রিকেটীয় অবকাঠামো ধ্বংস, দল নির্বাচনে টানা ব্যর্থতা, বোর্ডের সদস্যদের একাধিক পদ আকড়ে রাখার প্রবণতা দেশের ক্রিকেটকে আস্তে আস্তে পিছনের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। এভাবে চলতে থাকলে বাংলাদেশের ক্রিকেট জিম্বাবুয়ে বা কেনিয়ার পর্যায়ে যেতে খুব বেশি সময় লাগবেনা বলে মনে করেন মাহবুব।

বোর্ডের এসব অনিয়মের বিরুদ্ধে মানুষকে সচেতন করে দেশের ক্রিকেটকে বাচানোর উদ্যোগ নিয়েছে ক্রিকেটখোর। সাধারণ ক্রিকেটভক্তদের পাশাপাশি দেশের অনলাইনভিত্তিক অনান্য ক্রিকেট কমিউনিটিগুলোও তাদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেছে বলে দাবি করেন মাহবুব। এই প্রতিবাদ আপাতত অনলাইনে চললেও ক্রিকেটের বৃহৎ স্বার্থে মাঠে নামতে প্রস্তুত আছেন ক্রিকেটখোরের সদস্যরা। বিসিবির থেকে ভালো কোনো সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত এ প্রতিবাদ অব্যাহত থাকবে বলে হুঁশিয়ারি দেন তিনি।৷


মন্তব্য