হত্যার ৬ মাস: বেঁচে থাকলে হয়তো আজ একসাথে বাড়িতে থাকতাম

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার ৬ মাস পূর্ণ হলো আজ। যা নিয়ে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছে তার ছোট ভাই আবরার ফাইয়াজ। স্ট্যাটাসে তিনি ভাইকে কাছে পাওয়ার আকুতি জানানোর পাশাপাশি কিছু অভিমানও শেয়ার করেছেন। জানিয়েছেন করোনা পরিস্থিতিতে সবার মত একসাথে বাড়িতে থাকার আকাঙ্ক্ষা।

‘আজকে ৬ মাস পূর্ণ হলো ভাইয়া মারা যাওয়ার’ শিরোনামে ফাইয়াজ লিখেছেন, ‘‘সময়টা অনেক দ্রুতই চলে গেল। তখন মনে হয়েছিল হয়তো খুব শীঘ্রই মামলা শেষ হবে; কিন্তু সত্যি এখনো শুরুই হয়নি সেভাবে। জানিনা কী অবস্থায় আছিস এখন, ওই দুনিয়া সম্পর্কে কেউ জানেনা। ঘুমিয়ে না জেগে তাও জানি না। কিংবা আমাদের কারোর কথা মনে পড়ে কি-না কিছুই না। শুধু চাই ভালো থাক যেখানেই থাক।

সারাবিশ্ব এখন ভাইরাস নিয়ে এক মহা পরীক্ষায়। সবাই এখন বাড়িতে ফিরে গেছে। সবার ভাই-ই ঘরে ফিরেছে। পরিবারের সাথে আছে। তুই থাকলে হয়তো আমরাও একসাথেই থাকতাম। কিন্তু আজ ৬ মাস কোনো কথা হয় না তোর সাথে। আর হবেও না এই দুনিয়ায়। আগের বার ডেঙ্গুর সময় কত সাবধানে ছিলাম আমরা। তোকে বলছিলাম হল ছেড়ে আমার বাসায় চলে আয়। তুই শুনলি না; হয়তো অনেক ভালোই আছিস। এইসব চিন্তা ভাবনার বাইরে। খালি বলি যেখানেই থাকিস আল্লাহ যেন তোকে ভালো রাখে।

সবাই দোয়া করবেন ওর জন্য; আর নিজেদের খেয়াল রাখবেন এই সময়ে।’’

একই দিনে ‘৬ মাস আগের সেই দিনটা’ ক্যাপশনে আরেকটি ভিডিও শেয়ার করেছেন ফাইয়াজ।

তথ্যমতে, ২০১৯ সালের ৫ অক্টোবর দিল্লিতে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে কিছু চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। যার সমালোচনা করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ। এর প্রেক্ষিতেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরে বাংলা হলের একটি কক্ষে পিটিয়ে হত্যা করে ছাত্রলীগ কর্মীরা।


মন্তব্য