হাবিপ্রবিতে দেশের প্রথম বিশেষায়িত ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি ক্লিনিকের যাত্রা

  © টিডিসি ফটো

দেশের প্রথম বিশেষায়িত ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি ক্লিনিকের যাত্রা শুরু হয়েছে দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি)। বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১ টায় আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে এ ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি ক্লিনিকের যাত্রা শুরু হয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন হাবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মু. আবুল কাসেম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. বিধান চন্দ্র হালদার, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. মো. ফজলুল হক (বীর মুক্তিযোদ্ধা), কৃষি অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. ভবেন্দ্র কুমার বিশ্বাস, প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো.খালেদ হোসেন, পরিবহন শাখার পরিচালক অধ্যাপক ড. মফিজ উল ইসলাম, দিনাজপুর জেলার প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. শাহিনুর আলম,ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ, ভেটেরিনারি অনুষদীয় শিক্ষক-শিক্ষার্থী,কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ স্থানীয় খামারীরা।

উদ্বোধনের পর ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি ক্লিনিকের কার্যক্রমের অংশ হিসেবে দিনাজপুর চিরিরবন্দর উপজেলার রামডুবির বীরগা গ্রামের ফুলবন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে খামারী আনিছুর রহমান গরুর ঝংকা (আপওয়ার্ড প্যাটেলার ফিক্সেশন) রোগের অপারেশন করাসহ মোট ৩টি গুরুর বিভিন্ন রোগের অপারেশন করা হয়।

অপারেশনে নেতৃত্ব দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ও মেডিসিন সার্জারি এন্ড অবস্টেটিক্স বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. ফজলুল হক। এ সময় তাকে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেন অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, অধ্যাপক ডা. মো. তহিদার রহমান ও প্রভাষক ডা. মো. ইসমাইল হোসেন প্রমুখ।

গরুর অপরেশন

অপারেশন শেষে গরুর খামারী আনিছুর রহমান বলেন, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হতে স্যাররা যে ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি ক্লিনিক নিয়ে আমাদের এখানে এসেছে এই জন্য আমরা ধন্য। এত বড় রোগাক্রান্ত গরুকে সহজে আমরা ক্লিনিকে নিয়ে যেতে পারছিলাম না। এমন মহৎ উদ্যোগ গ্রহণের জন্য আমি ভিসি স্যারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।

তিনি বলেন, বাড়ি এসে পশুদের বিনামূল্যে এ ধরনের চিকিৎসা সেবা দেওয়া হবে আমরা এটা স্বপ্নেও ভাবিনি। কিন্তু আজ হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে তা বাস্তবে চোখে দেখলাম। অপারেশনের পর আমার গরুটি সুস্থ রয়েছে এবং আগের চেয়ে খুব ভালোভাবে হাঁটাচলা করতে পারছে। আমি মনে করি, এই ভেটেরিনারি ক্লিনিকের মাধ্যমে আমাদের দিনাজপুরের খামারীরা অনেক বেশি উপকৃত হবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য

ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি ক্লিনিকের বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মু. আবুল কাসেম বলেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে আমি বেশ কিছু উদ্যোগ হাতে নিয়েছিলাম তার মধ্যে ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি ক্লিনিক অন্যতম ছিল। বিশেষায়িত ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি ক্লিনিক আমাদের দেশে একটি নতুন ধারণা। সর্ব প্রথম আমরাই এটি করেছি।

তিন বলেন, উদ্বোধনের পর পরই আপনারা আজকের কার্যক্রম স্বচক্ষে দেখতে পেলেন। ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি ক্লিনিকের দ্বারা শুধু দিনাজপুরবাসীই নয় অত্র উত্তরাঞ্চলের কৃষক ও খারারীরা ব্যাপকভাবে উপকৃত হবেন বলে আমি আশা করছি। মুজিব বর্ষের শুরুতেই ভ্রাম্যমাণ ক্লিনিক ছাড়াও কৃষকদের সেবার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে কৃষক সেবা কেন্দ্র, মৎস্য হ্যাচারি, ডেইরি ও পোল্ট্রি ফার্ম করা হয়েছে।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ