আন্দোলন থামাতেই সেই আক্কাসকে শাস্তি: অডিও ফাঁস

সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) যৌন নির্যাতনের দায়ে অভিযুক্ত কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইন্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আক্কাস আলীর সঙ্গে উক্ত ঘটনা তদন্তে গঠিত তদন্ত কমিটির প্রধান আব্দুর রহিম খানের একটি কল রেকর্ড ফাঁস হয়েছে।

কল রেকর্ডে শোনা যায়, আব্দুর রহিম খান আক্কাস আলীকে বলছেন- তদন্ত রিপোর্টে আক্কাস আলীকে নির্দোষ বলা হয়েছে এবং উপাচার্য আক্কাস আলীর প্রতি পজিটিভ রয়েছেন। এসময় আব্দুর রহিম খান এটিও বলেন যে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থামাতেই মূলত এই শাস্তি দেয়া হয়েছে এবং দুই তিন মাস পর উপাচার্য সব ঠিক করে দিবেন।

কল রেকর্ডটির বিষয়ে আব্দুর রহিম খানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি প্রথমে এ ধরণের কোনো কথা বলার বিষয়টি অস্বীকার করেন। পরবর্তীতে কল রেকর্ডের কথা বলা হলে তিনি জানান, ‘আক্কাছ আলী খুব কান্নাকাটি করছিলো একারণে তাকে সান্ত্বনা দিতে এ কথা বলেছিলাম।’

এদিকে শিক্ষার্থীরা শুরু থেকেই আক্কাস আলীর এই শাস্তি নিয়ে অসন্তুষ্ট ছিলো। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষার্থী জানান, ‘যেখানে আমাদের একজন শিক্ষক ৯-৫ টা ক্লাস করে বেতন ভাতা পান সেখানে আক্কাস আলী কিছু না করেই সমপরিমাণ বেতন ভাতা ও সুযোগ সুবিধা পাচ্ছে। এটা কিভাবে শাস্তি হতে পারে!’

উল্লেখ্য, গত ৭ এপ্রিল দুই শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে আক্কাস আলীর চাকরিচ্যুতি দাবি করে আন্দোলন শুরু করে সিএসই বিভাগের শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনের প্রেক্ষিতে ড. আব্দুর রহিম খানকে প্রধান করে চার সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। পরবর্তীতে ১৮ তারিখ তদন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী আক্কাস আলীকে সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান পদ থেকে আজীবনের জন্য এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে চার বছরের জন্য অব্যাহতি দেয়া হয়।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ