জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে হাবিপ্রবির ৯ শিক্ষকের থানায় জিডি  

  © ফাইল ফটো

জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) ৯ জন শিক্ষক থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন কোতয়ালি থানার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেদওয়ানুর রহিম ।

জিডির বিষয় তিনি বলেন, হাবিপ্রবির প্রশাসনিক দায়িত্বে থাকা ৯ জন শিক্ষক থানায় এসে একটি জিডি করেছেন। মঙ্গলবার রাতে কোতোয়ালি থানায় ওই জিডি করা হয়েছে বলেও জানান অভিযোগকারী ৯ জন শিক্ষক।

জীবনের নিরাপত্তার জন্য জিডি করা শিক্ষকরা হলেন প্রফেসর ড. মো. মোস্তাফিজার রহমান (পরিচালক, পরিকল্পনা, উন্নয়ন ও ওয়ার্কস শাখা), প্রফেসর ড. মো. খালেদ হোসেন (প্রক্টর), প্রফেসর ড. মো. তারিকুল ইসলাম (পরিচালক, আই আর টি), প্রফেসর ড. মো. ইমরান পারভেজ (পরিচালক, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগ), ডা. মো. নজরুল ইসলাম (হল সুপার, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল), প্রফেসর ড. মো. তহিদার রহমান (হল সুপার, তাজউদ্দিন আহমেদ হল), ড. মো. মাহবুব হোসেন (সহকারী), ড. মো. আবু সাঈদ (সহকারী প্রক্টর), মো. বেলাল হোসেন (সহকারী পরিচালক, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগ)।

জিডিকারী শিক্ষকরা অভিযোগ করেন, দিনাজপুর শহরে বসবাসকারী হাবিপ্রবির ২/৩ জন উচ্ছৃঙ্খল কর্মচারী বিভিন্ন সময়ে হাবিপ্রবিতে প্রশাসনিক দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকদের কুরুচিপূর্ণভাবে ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ করেন এবং তাদের সম্পর্কে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়িয়ে থাকেন।

জিডিতে আরো উল্লেখ করেছেন, ‘সম্প্রতি আমরা গোপন সূত্রে জানতে পেরেছি, এই সব কর্মচারী হাবিপ্রবি প্রশাসনকে সহায়তাকারী শিক্ষকদের দিনাজপুর শহরের বিভিন্ন স্থানে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত ও অপমানিত করার পরিকল্পনা করছে। এই পরিস্থিতিতে আমরা জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে বেশ শঙ্কিত।’

জিডির বিষয়ে প্রক্টর প্রফেসর ড. মো. খালেদ হোসেন বলেন, ‘আমাদের ক্ষতি করার জন্য কয়েকজন চেষ্টা করছেন এমন তথ্য আমরা পেয়েছি। এ কারণে আমরা নিজেদের জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত আছি। তাই নিজেদের নিরাপত্তার জন্যই জিডি করা হয়েছে।’


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ