ছাত্ররাজনীতির চেষ্টা করলে ব্যবস্থা

  © টিডিসি ফটো

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে ছাত্রলীগের পিটিয়ে হত্যার জেরে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে ক্যাম্পাসে সাংগঠনিক ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধের ঘোষণা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।  সেই সাথে ভবিষ্যতে কেউ রাজনীতির চেষ্টা করলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দেয় বুয়েট প্রশাসন। 

শুক্রবার (১১ অক্টোবর) বুয়েটের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. মো. সাইদুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ বিষয়ে জানা গেছে। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অবৈধভাবে যারা আবসিক হলের সিট দখল করে আছে তাদেরকে অতিসত্বর সিট খালি করে দেয়া এবং ছাত্রসংগঠনগুলোর অফিসরুম বন্ধ করে দেয়ার জন্য ছাত্রকল্যাণ পরিচালক ব্যবস্থা নেবেন। আজ শনিবার (১২ অক্টোবর) থেকে উল্লিখিত কাজগুলো শুরু হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে ছাত্ররাজনীতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়ে বলা হয়, ভবিষ্যতে কেউ সাংগঠনিক ছাত্ররাজনীতি করার চেষ্টা করলে তার বিরুদ্ধে শৃংখলাভঙ্গের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

এছাড়াও র‌্যাগিং বা ছাত্র নির্যাতনের কোনো অভিযোগ আসলে তা ডিসিপ্লিনারি কমিটির মাধ্যমে দ্রুত বিচার করে সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

প্রসঙ্গত, বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার হত্যার বিচার এবং ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধসহ ১০ দাবিতে বিক্ষোভ করে বুয়েটের শিক্ষার্থীরা। শিক্ষক সমিতি ‍ও বুয়েট অ্যালামনাইয়ের দাবিও ছিলো রাজনীতি নিষিদ্ধ করা। সে দাবির প্রেক্ষিতে শুক্রবার ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধের বিজ্ঞপ্তি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। সেই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ইতোমধ্যে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সভাপতির রুম সিলগালা করে দেয় দেয় কর্তৃপক্ষ।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ