যবিপ্রবিতে ‘লিভিং এ লাইফ দ্যাট ম্যাটারস’ শীর্ষক সেমিনার

বেশিরভাগ মানুষের জীবনে সমাজ এবং তাঁর চারপাশ সুখ ও সাফল্যকে সংজ্ঞায়িত করে দেয় এবং আমরা অন্যের মতামত, স্বীকৃতি, অনুমোদন এবং মন্তব্যের ভিত্তিতে জীবনযাপন করি। প্রচলিত ধারণাগুলি দ্বারা পরিচালিত না হয়ে কীভাবে আত্ম নিয়ন্ত্রণ করে অর্থবহ জীবনযাপন করা যায় সে বিষয়ে ‘হাল্ট প্রাইজ যবিপ্রবি’ এবং ‘যবিপ্রবি ফটোগ্রাফিক সোসাইটি’র যৌথ আয়োজনে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (যবিপ্রবিতে) ‘লিভিং এ লাইফ দ্যাট ম্যাটারস’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (৩১ আগস্ট) দুপুর দেড়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএসএমআর একাডেমিক ভবনের গ্যালারী কক্ষে সেমিনারটি শুরু হয়।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আন্তর্জাতিক অনুপ্রেরণামূলক বক্তা, ওয়ার্ল্ড পিস এ্যান্ড হ্যাপিনেস ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও গ্লোবাল পিস চেইনের কান্ট্রি ডিরেক্টর চৌধুরী কায়সার মোহাম্মদ রিয়াদ

মূল প্রবন্ধে তিনি বলেন, আমদের যার যেটাতে ফোবিয়া বা ভীতি আছে সেটা নিয়ে কাজ করতে হবে,ওটাকে এড়িয়ে না গিয়ে মুখোমুখি হতে হবে যাতে করে ভয়কে জয় করা যায়।এছাড়া তিনি চাকরীর বেতন যা হোক স্বাস্থ্যকে গুরুত্ব দিয়ে সচেতন হওয়া,সবসময় কৃতজ্ঞ থাকা,যে যেখানে আছে, ওই স্থানটাতে সুখি থাকা এবং রাগ পরিহার করে নিজে থেকেই সরি বলতে শেখার পরামর্শ দেন।

তিনি আরও বলেন, মানুষের সাথে মানুষের চিন্তায় ভিন্নতা থাকবে সেটা মেনে নিতে হবে, সব কাজে প্রতিক্রিয়া দেখানো যাবে না এবং শিক্ষার্থীদেরকে নিজের দুর্বলতাকে মেনে নিতে উপদেশ দেন যাতে বিকশিত হতে সুবিধা হয়।

সেমিনার শেষে হাল্ট প্রাইজ যবিপ্রবির ক্যাম্পাস ডিরেক্টর মৃন্ময় কুমার শীল দ্যা ডেইলী ক্যাম্পাসকে জানান, এই সেমিনারের মধ্য দিয়েই মূলত হাল্ট প্রাইজ প্রতিযোগিতা-২০২০ এর যবিপ্রবি পর্বের শুভ সূচনা হল। বিগত বছরের ভুল ত্রুটিকে শুধরিয়ে এবছর নতুন আঙ্গিকে প্রতিযোগিতাটি ক্যাম্পাসে আয়োজন করা হবে। প্রতিযোগিতার বিষয়ে পরবর্তী কার্যক্রম সম্পর্কে শিক্ষার্থীদেরকে যথাসময়ে জানিয়ে দেওয়া হবে।

সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তরের পরিচালক ড. মো. মীর মোশাররফ হোসেন, সহকারী পরিচালক ও কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ নওশীন আমিন শেখ, ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক দিনালো চাকমাসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ