শিক্ষায় সার্টিফিকেট সর্বস্ব যেন না হয়: শিক্ষামন্ত্রী

  © সংগৃহীত

‘চাকরিপ্রত্যাশীরা বলেন চাকরি নেই আবার দাতারা বলেন, চাকরি দেওয়ার জন্য যোগ্যপ্রার্থী পাই না। শিক্ষা সার্টিফিকেট সর্বস্ব যেন না সুতরাং সার্টিফিকেট সর্বস্ব শিক্ষা আমরা আর চাই না। আজ শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে খুলনার রূপসায় অবস্থিত ‘সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজের ৪৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও পুনর্মিলনী’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এ মন্তব্য করেন।

ডা. দীপু মনি বলেন, কারিগরি শিক্ষায় যেন অধিক শিক্ষার্থী শিক্ষিত হয়ে স্বাবলম্বী হতে পারে, উদ্যোক্তা হতে পারে সেলক্ষ্যে নানাবিধ পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে সরকার। বর্তমানে কারিগরি শিক্ষায় ভর্তির হার ১৭ শতাংশ থেকে ২০৩০ সালের মধ্যে ৩০ শতাংশ উন্নীত করতে চায় সরকার।’ তাছড়া এক সময় শিক্ষার ক্ষেত্রে সংখ্যাকে গুরুত্ব দেওয়া হলেও বর্তমানে শিক্ষার মানোন্নয়নে সরকার অধিক মনোযোগী। শিক্ষার মানোন্নয়নের মাধ্যমে জনসংখ্যাকে জনসম্পদে পরিণত করতে শিক্ষায় বিনিয়োগ ব্যাপক বৃদ্ধি করেছে বর্তমান সরকার।

শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর নামে প্রতিষ্ঠিত এই কলেজের শিক্ষার্থীদের বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ বুকে ধারণ করে নিজেদের এমনভাবে গড়ে তুলতে হবে যেন তা সারা দেশের জন্য অনুকরণীয় হয়। দ্রুত পরিবর্তনশীল তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারে নিজেরদের দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে।

জীবনব্যাপী শিক্ষার উপর গুরুত্ব দিয়ে ডা. দীপু মনি বলেন, পাঠ্যপুস্তকের পাশাপাশি কিছু সামাজিক ও আবেগীয় দক্ষতা অর্জন এখন সময়ের দাবি। যোগযোগ স্থাপন, টিমওয়ার্ক, মানবতা, পরমতসহিষ্ণুতা, দেশপ্রেম ইত্যাদি যেমন শিখতে হবে তেমনি লোভ, হিংসা, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদক, নারীর প্রতি সহিংসতা, বাল্যবিয়ে ইত্যাদি থেকে দূরে থাকতে হবে শিক্ষার্থীদের।

কলেজের অধ্যক্ষ সরকার ফেরদৌস আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ, পুলিশ সুপার এসএম শাফিউল্লাহ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাভভোকেট সুজিত অধিকারী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম ডি এ বাবুল রানা, রূপসার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাসরিন আক্তার ও সাবেক সংসদ সদস্য মোল্লা জালাল উদ্দিন প্রমুখ।

এছাড়া অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. আমীর হোসেন এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা খুলনার পরিচালক মো. হারুনুর রশীদ। এর আগে মন্ত্রী কলেজের শহীদ শেখ আবু নাসের একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন এবং ডিজিটাল ক্যাম্পাসের উদ্বোধন করেন।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ