শিক্ষার্থীদের বিচলিত না হওয়ার অনুরোধ, বেইজিংয়ে হটলাইন চালু

  © ফাইল ফটো

করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় চীনের উহান শহরে আটকা পড়া প্রায় ৫০০ বাংলাদেশি দেশে ফিরতে চান। এ জন্য তারা বাংলাদেশ সরকারের জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছে। বিষয়টি গণমাধ্যমে উঠে আসলে সঙ্গে সঙ্গে সরকারের নজর আসে। শনিবার পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো: শাহরিয়ার আলম জানিয়েছেন, বেজিংয়ে বাংলাদেশি এম্বেসিতে হটলাইন খোলা হয়েছে। তাই সবাইকে বিচলিত না হয়ে সরকারি নির্দেশ মেনে চলার জন্য তিনি আহ্বান জাানান।

এদিকে, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী জানিয়েছেন, বিষয়টি নিয়ে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে, তবে শঙ্কিত হওয়ার কিছু নাই। পাশাপাশি এর চিকিৎসা নিয়ে যে প্রচার চালানো হচ্ছে তা নিয়ে বিভ্রান্ত না হওয়ার অনুরোধ জানান তিনি। 

শনিবার নিজ ফেসবুক একাউন্টে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো: শাহরিয়ার আলম লিখেছেন, বেজিংয়ে আমাদের এম্বেসিতে হটলাইন খোলা হয়েছে (86)-17801116005। আমাদের কর্মকর্তা খায়রুল বাসার এবং আসিফ বাংলাদেশীদের করা ২৪৫ সদস্যের We Chat গ্রুপে অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন। বিশেষ করে Wuhan শহরে সরকার কাউকেই বাসা থেকে বের হতে দিচ্ছে না, সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে। বিচলিত না হয়ে সরকারি নির্দেশ মেনে চলার জন্য সবাইকে বলা হয়েছে।

রবিবার শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নিজ ফেসবুক একাউন্টে লিখেছেন, চীনে কোরোনা ভাইরাস সংক্রমন নিয়ে সেখানে আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতি অনুরোধ বিচলিত না হয়ে চীন সরকারের নির্দেশনা মেনে চলুন। সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে, শঙ্কিত হওয়ার কিছু নাই। পাশাপাশি এর চিকিৎসা নিয়ে যে প্রচার চালানো হচ্ছে তা নিয়ে বিভ্রান্ত হবেন না। যেকোনো ভাইরাল অসুখের চিকিৎসা অনুসর্গ ভিত্তিক (symptomatic)। অনেক ভাইরাসেরই কোনো প্রতিষোধক বা ভেক্সিন নাই, যেমন-ডেঙ্গু। তাই অনুসর্গ ভিত্তিক চিকিৎসা নিয়ে অনেকেই কোরোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েও সুস্থ আছেন।

তিনি আরও লিখেছেন,  শত শত মানুষ অসুস্থ, কিন্তু মারা গিয়েছেন এখনো ৪০ জনের কম। চীনে ১০০ কোটি মানুষের বসবাস। এইযে ভেক্সিন নাই মানে নির্ঘাত মৃত্যু, এই ধরণের অপপ্রচারে কান দেবেন না। আমাদের দেশে ইতিমধ্যেই বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় ব্যাপক সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ