২৪ সালের মধ্যে প্রায় ১ লাখ উদ্যোক্তা তৈরি করবে সরকার

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক  © ফাইল ফটো

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক বলেছেন, আইসিটি বিভাগের বিভিন্ন উদ্যোগের মাধ্যমে আগামী ২০২৪ সালের মধ্যে প্রায় ১ লাখ উদ্যোক্তা তৈরি করা সম্ভব। সে লক্ষ্যেই বর্তমান সরকার কাজ করছে।

বৃহস্পতিবার (০৫ ডিসেম্বর) ইউনিসেফ, একশনএইড বাংলাদেশ এবং এটুআইয়ের যৌথ আয়োজনে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের উইন্ডি টাউন হলে ‘স্কিলস এবং ফিউচার অব ওয়ার্ক’ বিষয়ক জাতীয় সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

শিক্ষায় ই-লার্নিং পদ্ধতির উপর গুরুত্বারোপ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ঐতিহ্যগত প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা থেকে বেরিয়ে এসে স্কুল পরবর্তী সময়ে ই-লার্নিং প্রোগ্রাম চালু করা উচিত। এক্ষেত্রে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব কার্যকরী ভূমিকা রাখতে পারে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, একটি পিরামিড সিস্টেম গড়ে তোলা হচ্ছে যেখানে সবচেয়ে উপরের স্তরে থাকবে উদ্ভাবক, ২য় স্তরে উদ্যোক্তা এবং ৩য় স্তরে ব্যবস্থাপক ও নিয়োগকর্তা কিংবা ইন্ডাস্ট্রি। উদ্ভাবক গড়ে তোলার পাশাপাশি ইনোভেশন ইকোসিস্টেম গড়ে তুলতে আইডিয়া প্রজেক্ট এবং এটুআই-এর ইনোভেশন ল্যাব (আইল্যাব) কাজ করে যাচ্ছে।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান এবং সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান, এমপি; তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক, এমপি এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের প্রাক্তন মুখ্য সমন্বয়ক (এসডিজি) এবং জেনারেশন আনলিমিটেড (জেন ইউ) ইন বাংলাদেশ এর সভাপতি জনাব মো আবুল কালাম আজাদ।

অনুষ্ঠান

সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, পিএএ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন এটুআইয়ের প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ড. মো. আব্দুল মান্নান, পিএএ। সমাপনী অধিবেশনে প্যানেল আলোচনা সঞ্চালনা করেন এটুআইয়ের পলিসি অ্যাডভাইজর আনীর চৌধুরী।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ