ছিন্নমূল মানুষের পাশে ঢাবির শ্রাবণ স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন

  © টিডিসি ফটো

প্রাণঘাতী করোনভাইরাসে স্থবির হয়ে পড়েছে গোটা বিশ্ব। দেশেও এ ভাইরাসে আতঙ্ক বিরাজ করছে। উদ্ভুত পরিস্থিতিতে সঙ্কট মোকাবেলায় সারাদেশের ন্যায় হতদরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ঐতিহ্যবাহী বাস রুট শ্রাবণ স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন।

সোমবার সংগঠনটির উদ্যোগে প্রায় ২৫০ জন দিনমজুর, রিক্সাওয়ালা, ছিন্নমূল মানুষের হাতে খাদ্যসামগ্রী তুলে দেওয়া হয়। এরমধ্যে ছিল দেড় কেজি চাল, ১ কেজি আলু, আধা কেজি পেঁয়াজ, আড়াইশো গ্রাম করে ডাল।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শ্রাবণ স্টূডেন্টস এসোসিয়েশনের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল খান, সাবেক দুই সভাপতি তারেক হোসেন শিমুল, ইসতিয়াক আহমেদ হৃদয়। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন উজ্জ্বল, রাকিব, সাইফ খালিদ, রিফাত, মাজহারুল প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল খান জানান, ‘আমরা শিক্ষার্থীরা সমাজের বিত্তবান লোকদেরকে একটা মেসেজ দিতে চাই, উনারা যেন জাতির এই ক্রান্তিলগ্নে এসব ছিন্নমূল মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন।’

সাবেক সভাপতি তারেক হোসেন শিমুল বলেন, আমরা সাধ্যমত চেষ্টা করেছি ওদের জন্য কিছু করতে। সামনের দিনগুলোতে আমাদের এ প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সচেতনতার কোন বিকল্প নেই। আমাদের পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কোন বিকল্প নেই।

আরেক সাবেক সভাপতি ইসতিয়াক আহমেদ হৃদয় বলেন, বর্তমান সরকার সর্বাত্মক চেষ্টা করে যাচ্ছে করোনার ভয়াবহতা থেকে বাংলাদেশের মানুষকে রক্ষা করতে। আগামী ৬-৭ দিন সম্পূর্ণ বাসায় থাকাটাই এখন আমাদের সবচেয়ে বড় কাজ। সরকারের দেয়া ঘোষণাগুলো মেনে চললে এবং সচেতন থাকলে আমরা করোনাভাইরাসকে মোকাবেলা করতে সক্ষম হবো।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ