‘ষড়যন্ত্র-বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির জন্যই’ পূজার দিনে নির্বাচন: নুর

নুরুল হক নুর  © ফাইল ফটো

‘কোনো ষড়যন্ত্র বা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির জন্যই’ পরিকল্পিতভাবে পূজার দিনে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে অভিযোগ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহসভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) রাত সাড়ে আটটায় দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ অভিযোগ করেন নুর। তিনি বলেন, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশে পূজা ও নির্বাচন একই দিনে হতে পারে না। ষড়যন্ত্র বা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির জন্যই পরিকল্পিতভাবে পূজার দিনে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে।

নুরুল হক বলেন, ঢাকার দুই সিটির নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন চেয়ে করা একটি রিট হাইকোর্ট থেকে খারিজ করে দেওয়া হয়েছে। সেদিন মানুষ ভোট দেবে, নাকি তাদের ধর্মীয় অনুষ্ঠান পালন করবে? তাই আমাদের দাবি, নির্বাচনের তারিখ হয় এগোতে হবে, নয়তো পেছাতে হবে। আমরা মনে করি, এখানে সরকার ও নির্বাচন কমিশনের কোনো ষড়যন্ত্র বা কারসাজি রয়েছে। পূজার দিনে নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে পরিকল্পিতভাবে।

ভোটের তারিখ পেছানোর দাবিতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সাথে ছাত্রলীগ আন্দোলন করায় ছাত্রলীগকে সাধুবাদ জানিয়ে নুর বলেন, ছাত্রলীগ যদি সরকারের উচ্চ মহলের কাছে ভোটের তারিখ পেছানোর দাবি জোরাল ভাবে করে তাহলে সরকার তাদের দাবি অবশ্যই মেনে নেবে।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সংহতি জানাতে যাবেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে নুর বলেন, ছাত্রলীগ আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়ায় আমরা সেখানে যাচ্ছি না। কারণ আমরা সব সময়ই তাদের হাতে লাঞ্ছিত হয়েছি। তবে সাধারণ শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করলে আমি অবশ্যই তাদের আন্দোলনে যোগ দিতাম।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ