নির্বাচন কমিশন ঘেরাও করবে ঢাবি শিক্ষার্থীরা, আল্টিমেটাম

শাহবাগ অবরোধ করে আন্দোলন করছে শিক্ষার্থীরা  © টিডিসি ফটো

আগামীকাল দুপুর ১২টার মধ্যে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তারিখ পেছানো না হলে নির্বাচন কমিশনের কার্যালয় ঘেরাও করার হুঁশিয়ারি দিয়ে আজকের মত আন্দোলনের সমাপ্তি ঘোষণা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এর আগে নির্বাচনের তারিখ পেছানোর দাবিতে শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা।

ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোট গ্রহণের তারিখ পরিবর্তনের আবেদন জানিয়ে করা রিটটি খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। ফলে ৩০ জানুয়ারিই এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর প্রতিবাদে সাধারণ শিক্ষার্থীর ব্যানারে মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন তারা। এতে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ভোগান্তিতে পড়ে সাধারণ পথচারীরা।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুর ১২টা পর্যন্ত আল্টিমেটাম দেওয়া হয়েছে জানিয়ে জগন্নাথ হল ছাত্র সংসদের ভিপি উৎপল বিশ্বাস দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে জানান, ২৯ এবং ৩০ তারিখ সরস্বতী পূজা আছে। এটি জানার পরেও ৩০ তারিখে নির্বাচন কোন ভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। আমরা নির্বাচন কমিশনকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সময় বেধে দিয়েছি। এর মধ্যে ভোটের তারিখ না পেছানো হলে আগামীকাল ইসি কার্যালয় ঘেরাও করা হবে।

এ বিষয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল সংসদের জিএস মেহেদী হাসান শান্ত বলেন, আমাদের দেশ হলো অসাম্প্রদায়িক একটি দেশ। এ দেশে পূজার দিনে নির্বাচন কখনো কাম্য হতে পারে না। আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়। ডাকসু, সাধারণ শিক্ষার্থী ঐক্য পরিষদ, সাধারণ শিক্ষার্থী, শিক্ষকের দাবি এবং মানববন্ধনের পরেও হাইকোর্ট কেন রিট খারিজ করল এটা আমরা জানতে চাই। যতদিন আমাদের এই দাবি মেনে নেওয়া না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা জেগে থাকবে।

এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের এজিএস সাদ্দাম হোসেন বলেছিলেন, যদি পূজার দিনে নির্বাচনের তারিখ পেছানো না হয় তাহলে আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা নির্বাচন কমিশন অফিস ঘেরাও করব। আর কিভাবে দাবি আদায় করতে হয় তা আমরা দেখিয়ে দিব।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ