প্রতারণার অভিযোগ,  ডাকসুর সাংস্কৃতিক সম্পাদকের দুঃখ প্রকাশ

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করছেন আসিফ তালুকদার  © টিডিসি ফটো

সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যলয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) কর্র্তৃক আয়োজিত ‘ট্যালেন্ট হান্ট’ প্রতিযোগিতায় পুরস্কার বিতরণকে নিয়ে প্রতারণার অভিযোগ ওঠায় তাতে দুঃখ প্রকাশ করেছন ডাকসুর সাংস্কৃতিক সম্পাদক আসিফ তালুকদার।

শুক্রবার (০৮ নভেম্বর) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যায় সাংবাদিকসমিতিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই দুঃখ প্রকাশ করেন। এসময় তার সাথে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ডাকসু সদস্য রাকিবুল ইসলাম সবুজ।

এর আগে ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ট্যালেন্ট হান্ট -২০১৯’ সালের প্রচারণী পোস্টারে পুরস্কারের বিষয়ে বলা হয় “প্রতিটি বিষয় থেকে প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থান অধিকারীকে হল পর্যায়ে বই, ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট দিয়ে পুরস্কৃত করা হবে”।

এদিকে কয়েকটি হলের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারি শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন যে ট্যালেন্ট হান্টের পোস্টারে বই, ক্রেস্ট এবং সার্টিফিকেটের কথা উল্লেখ থাকলেও তা তাদে দেওয়া হয়নি। শুধুমাত্র একটি ‘মগ’ এবং ‘সার্টিফিকেট’ দেওয়া হয়েছে। আবার, প্রতিযোগিতায় বিজয়ী অনেক শিক্ষার্থী বলেছেন তাদের সাথে পুরস্কারের নামে প্রতারণা করা হয়েছে। এ নিয়ে গত বৃহস্পতিবার প্রতিবেদন প্রকাশ করে দ্য ডেইলি ক্যম্পাস। পরে শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে করে এ নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেন ডাকসুর এ নেতা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠকালে আসিফ তালুকদার বলেন , ‘ট্যালেন্ট হান্ট’ প্রতিযোগিতায় প্রাথমিক পর্যায়ে আমাদের পরিকল্পনা ছিলো হল পর্যায়ে নির্বাচিতদের আমরা ক্রেস্ট ,বই ও সার্টিফিকেট প্রদান করবো। আয়োজনের অনেক আগেই প্রিন্টিং ও প্রেসের কাজ সম্পন্ন হওয়ায় আমাদের সকল ব্যানার ও পোস্টারে বিষয়টি উল্লেখ ছিলো। কিন্তু কোন পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানকে আমারা আমাদের আয়োজনে সম্পৃক্ত না করায় আয়োজনটি ডাকসুর বাজেট হতে করা হয়।

তিনি আরো বলেন, আমাদের বাজেট সল্পতার কারণে আমাদের পক্ষে পূর্বঘোষিত পুরস্কার প্রদান করতে পারিনি। যা আয়োজনটি শুরু করার আগে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সাংবাদিক বন্ধুদের জানানো হয়েছে। কিন্তু সময় স্বল্পতার কারণে ক্যাম্পাসে লাগানো পোস্টার ও ব্যানারে সংশোধন করা হয়ে ওঠেনি যার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখিত।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ