সাত কলেজ: অর্ধেকের নিচে নামলো ফেলের হার

গণহারে ফেল। ঢাকা বিশ্ববিদালয় অধিভুক্ত সাত কলেজ যেন এই বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসতে পারছে না। কখনো অর্ধেক ফেল, কখনওবা অর্ধেকের বেশি। এমন ঘটন-অঘটনের মধ্য দিয়েই নতুন আরেকটি বিষয়ের প্রকাশ হলো। ৬ আগস্ট উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের আদেশক্রমে ২০১৮ সালের বি.বি.এ (অনার্স) চতুর্থ বর্ষের ব্যবস্থাপনা পরীক্ষার ফল প্রকাশ পেয়েছে আজ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালযয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মােঃ বাহালুল হক চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

প্রকাশিত ফলে ব্যবস্থাপনা বিষয়ে ৫৭ দশমিক ০৩ ভাগ  শিক্ষার্থী পাস করেছে। ফেল করেছে ৪২ দশমিক ৯৭ ভাগ। তথ্যমতে, বিভাগটিতে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১২শ ১৩ জন। যার মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ১২শ ১০ জন। এদের মধ্যে পাশ করেছেন ৬শ ৯০ জন শিক্ষার্থী। তিনজন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অনুপস্থিত ছিলেন। আগামী ২০ আগস্ট পর্যন্ত ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের জন্য আবেদন করা যাবে।

এর আগে অধিভুক্ত কলেজের বি.এস.এস (অনার্স) প্রথম বর্ষের অর্থনীতি পরীক্ষার ফল প্রকাশ পায়। সেখানে অর্ধেকের বেশি শিক্ষার্থী ফেল করে। সে তুলনায় কিছুটা কমলো ফেলের হার।

যদিও শিক্ষার্থীরা বলছেন, অর্ধেকের কম ফেল, এটা দিয়ে বিবেচনা করা যাবে না। কারণ অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ৮০ থেকে ৯০ শতাংশ শিক্ষার্থীরা ফেল করেছেন। বিষয়টি নিয়ে তারা প্রথমে তাদের স্ব স্ব বিভাগে অভিযোগ করলেও কোনো প্রতিকার পায়নি। পরে ঢাবি কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ ও উত্তরপত্র পুনরায় সঠিকভাবে মূল্যায়নের কথা বলেছে।

 

ফলাফলের সারমর্ম

 

জানা যায়, ২০১৭ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর সাত সরকারি কলেজকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত করা হয়। এগুলো হচ্ছে-ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর সরকারি বাঙলা কলেজ ও সরকারি তিতুমীর কলেজ। অধিভুক্ত হওয়ার পর থেকেই নানা সংকট লেগেই আছে এসব কলেজের। ফলে লাখেরও বেশি শিক্ষার্থী উদ্বেগের মধ্যে রয়েছে। এ কারণে তারা কখনও পরীক্ষার রুটিন, কখনও ফলের দাবিতে রাজধানীর নীলক্ষেত ও শাহবাগের মোড় অবরোধ করছে শিক্ষার্থীরা।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ