ঢাবির শহীদুল্লাহ হল

ইফতারে নিম্নমানের খাবার, প্রভোস্ট অফিসে তালা দিল ছাত্ররা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল্লাহ হলে সরবারহকৃত ইফতারে স্বল্পতা পড়ায় বিক্ষোভ করছে শিক্ষার্থীরা। এছাড়া নিম্নমানের খাবার বিতরণ করায় ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী হলের প্রভোস্টের কক্ষে তালা ঝুলিয়ে দেয়। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইফতার বিতরণ করলে এ ঘটনা ঘটে। এদিকে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ করছে বলে খবর পাওয়া যায়।

জানা যায়, আজ মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্যেক হলে রমজানের বিশেষ খাবার ইফতার ও বিরানি বিতরণ করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের হল থেকে সরবরাহকৃত খাবারের মান বিভিন্ন হলে কম-বেশি ভিন্নতা ছিল। এদিকে খাবারের মান খারাপ হওয়ায় শহীদুল্লাহ হলের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভে নামে। রাত সাড়ে ৯টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা প্রভোস্টের কক্ষে তালা লাগিয়ে দেয়। আর বাহিরে তারা বিক্ষোভ প্রদর্শন করছে।  

এসময় তারা ‘খাবার নিয়ে টাল বাহানা, চলবে না চলবে না’, ‘নিম্নমানের খাবার কেন প্রশাসন জবাব চাই' ইত্যাদি স্লোগান দেয়। হলের শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, আজকে হল প্রদত্ত ইফতারের মান ছিল খুবই নিম্নমানের। এছাড়াও অনেক শিক্ষার্থী ইফতার পায়নি।

আমিনুল ইসলাম নামে হলের এক আবাসিক শিক্ষার্থী দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, হলের দেয়া আজকে ইফতারি ছিল খুবই বাজে। সামান্য এক টুকরো মাংস ছিল সেখানে। আমাদের অনেকেই খাবার পায়নি। এজন্য আমরা প্রভোস্ট অফিসে তালা দিয়েছি।

শরিফুল হক শাহিন নামে আরেক শিক্ষার্থী বলেন, কাউকে দেয়া হয়েছে তেহেরী আবার কেউ পেয়েছে মোরগ পোলাও। খাবারের মানের কথা জানতে চেয়ে লজ্জা দেবেন না!

এ বিষয়ে জানতে শহীদুল্লাহ হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. সৈয়দ হুমায়ূন আখতারকে একাধিকাবার ফোন দেয়া হয়েছে। কিন্তু তিনি ফোন রিসিভ না করায় তার কোন বক্তব্য জানা যায়নি।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ