পাবিপ্রবির ডিবেটিং সোসাইটির স্কুল ভিত্তিক কর্মশালা

  © টিডিসি ফটো

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পাবিপ্রবি) ডিবেট সংগঠন পাস্ট ডিবেটিং সোসাইটির আয়োজনে বিতর্ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় ইমাম গাজ্জালী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠানের শতাধিক শিক্ষার্থী ঐ কর্মশালায় অংশগ্রহণ করে।

বিতর্ক কর্মশালার প্রধান প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন পাস্ট ডিবেটিং সোসাইটির সভাপতি এনামুল হক শাওন, আমন্ত্রিত প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল ডিবেটিং সোসাইটির (বিআইডিএস) সিইও মাহাতাব খান বাঁধন। এছাড়াও প্রশিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন পাস্ট ডিবেটিং সোসাইটির কোষাধ্যক্ষ মো. হাসান আল হুসাইন শুভ্র ও পাস্ট ডিবেটিং সোসাইটির সদস্য সাকিব সিজান।

প্রশিক্ষকেরা বিতর্ক কর্মশালায় শিক্ষার্থীদের বিতর্কের ধরণ, বিতর্কের ধারা এবং বিতর্কের বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। কর্মশালা শেষে পাস্ট ডিবেটিং সোসাইটির সদস্যরা এক ছায়া সংসদ বিতর্কের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মাঝে সংসদীয় বিতর্ক ধারার খুঁটিনাটি বিষয়গুলো তুলে ধরেন। এছাড়াও এক কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয় ও বিজয়ী শিক্ষার্থীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

পাস্ট ডিবেটিং সোসাইটির সভাপতি এনামুল হক শাওন বলেন, এটা আমাদের স্কুল ভিত্তিক প্রথম বিতর্ক কর্মশালা। আমাদের পরিকল্পনা রয়েছে পাবনা সদর উপজেলার সকল স্কুলে এ রকম কর্মশালার আয়োজনের মধ্যে দিয়ে দক্ষ বিতার্কিক গড়ে তোলা। যারা পরবর্তীতে নিজের যুক্তি বুদ্ধির মাধ্যমে দেশ গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল ডিবেটিং সোসাইটির(বিআইডিএস) সিইও মাহাতাব খান বাঁধন বলেন, একজন বিতার্কিকের অবশ্যই কমিউনিকেশন স্কিল ভালো হতে হবে। বর্তমান বিশ্বে তারাই এগিয়ে আছেন যাদের কমিউনিকেশন স্কিল অনেক ভালো।

বিতর্ক কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন ইমাম গাজ্জালী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ সুরাইয়া সুলতানা। তিনি তার বক্তব্যে পাস্ট ডিবেটিং সোসাইটিকে ধন্যবাদ দিয়ে জানান যে এমন কর্মশালার মাধ্যমে তার শিক্ষার্থীরা নিজেদের ব্যক্তিত্ব বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে আরও বেশি যোগ্যতাসম্পন্ন হয়ে উঠবে। কর্মশালায় আরও উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ