শিক্ষককে কান ধরে উঠবসের ঘটনায় ছাত্রীর বিরুদ্ধে মামলা

শিক্ষককে কান ধরে উঠবসের ঘটনায় ছাত্রীর বিরুদ্ধে মামলা
  © ফাইল ফটো

বরিশালে বেসরকারি নার্সিং ইনস্টিটিউটের সাবেক শিক্ষক মিজানুর রহমান সজলকে কান ধরে উঠবসের ঘটনা ও ছাত্রীর পা ধরে মাফ চাওয়ার ভিডিও ভাইরালের সেই ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাতে মিজানুর রহমান সজল বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলাটি করেন।

জানা গেছে, নগরীর জমজম ইন্সটিটিউটের সাবেক শিক্ষক মিজানুর রহমান সজলের সঙ্গে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে ২৬ আগস্ট ওই ইন্সটিটিউটের ছাত্র ইমতিয়াজ ইমন ও তার সহযোগীরা নগরীর অক্সফোর্ড মিশন রোডে নিয়ে তাকে মারধর করে। পাশাপাশি ওই শিক্ষককে কান ধরে উঠবস করিয়ে সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়া হয়। তখন জমজম ইন্সটিটিউটের ছাত্রী ইমনের স্ত্রী মনিরাও উপস্থিত ছিল। ইমন ও তার সহযোগীরা মনিরাকে যেন ডিস্টার্ব করা না হয় সেই জন্য শিক্ষক সজলকে শপথবাক্যও পাঠ করান, যা ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা এবং শোনা যায়।

মামলায় প্রাক্তন শিক্ষার্থী ইমতিয়াজ ইমন, তার স্ত্রী একই ইনস্টিটিউটের বর্তমান ছাত্রী মনিরা আক্তারসহ অজ্ঞাতনামা সাত-আটজনকে আসামি করা হয়েছে। অভিযুক্ত দম্পতি আত্মগোপন করেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি নুরুল ইসলাম বলেন, পূর্বের শত্রুতার জের ধরে গত ২৫ আগস্ট ওই শিক্ষককে নগরীর চৌমাথা থেকে ধরে গোরস্তান রোড এলাকায় নিয়ে যায় ইনস্টিটিউটের সাবেক ছাত্র ইমতিয়াজ ইমন ও তার সহযোগীরা।
সেখানে তাকে শারীরিক নির্যাতন করে কান ধরিয়ে ওঠবোস করানো এবং ইমনের স্ত্রী একই ইনস্টিটিউটের বর্তমান ছাত্রী মনিরার পায়ে ধরে মাফ চাইতে বাধ্য করা হয়।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ