করোনায় আক্রান্ত প্রবাসী বাবা, টেনশনে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

  © প্রতীকী ছবি

আগামীকাল রবিবার (৩১ মে) চলতি বছরের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হবে। এ ফল প্রকাশের আগে গায়ে আগুন দিয়ে ফলপ্রত্যাশী এক ছাত্রী আত্মহত্যা করেছেন। ওই ছাত্রীর নাম নাসরিন আকতার চাঁদনী (১৬)। তিনি চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ উপজেলার পূর্ব কাজীরগাঁও গ্রামের আনোয়ার হোসেনের মেয়ে। এক ভাই এবং দুই বোনের মধ্যে চাঁদনী দ্বিতীয়। তার বাবা কাতার প্রবাসী।

হাজীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসনে রনি জানান, শুক্রবার (২৯ মে) দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। তিনি চলতি বছর সপ্তগ্রাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিল।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার (২৮ মে) বিকাল ৫টার দিকে নিজ ঘরে গায়ে আগুন দেয় চাঁদনী। পরে বাড়ির লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। এরপর তার অবস্থা অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়।

নিহত চাদনীর দাদী জানান, চাঁদনীর বাবা কাতারে করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন। তার ২টি কিডনী অচল। এ অবস্থায় বাড়ীতে ফোনও করতে পারছেনা। ৩/৪ দিন পর একবার কথা বলে। সরকারি ত্রাণ সহায়তায় তাদের পরিবারটি চলে। সম্প্রতি সময়ে শেখ হাসিনার উপহার ২৫০০ টাকা পেয়েছে। বাবার খুবই আদরের মেয়ে ছিল চাঁদনী। বাবার কথা চিন্তা করেই হতাশাগ্রস্থ থেকে আত্মহত্যা করেছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ