ব্যবসার টাকা ফেরত চাওয়ায় কলেজছাত্রকে হত্যা

  © সংগৃহীত

সাতক্ষীরা সরকারি কলেজে অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রাসুল আহম্মেদ জিম (২২) নিজের ব্যবসার টাকা ফেরত চাওয়ায় অপহরণের পর হত্যা করেছেন তারই ব্যবসায়িক পার্টনার জাহিদ হাসান (২৩)। বৃহস্পতিবার জাহিদের উদ্ধৃতি দিয়ে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ দিনগত রাতে এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, খুলনার খানজাহান আলী থানার শেখ হেমায়েত হোসেন হিমুর ছেলে জিম। তারা বর্তমানে পুরাতন সাতক্ষীরা হাটখোলার একটি বাড়িতে ভাড়া থাকেন। জিম তার পরিচিত সাতক্ষীরা শহরের মুনজিতপুরের আব্দুর রউফ হাসানের ছেলে জাহিদকে অনলাইনে ব্যবসা করার জন্য দেড় লাখ টাকা দেন। গত ২১ জানুয়ারি সকাল সাড়ে ৯টার দিকে জিম শহরের চালতে তলায় জাহিদের ভাড়া বাড়িতে গিয়ে ব্যবসার টাকা ফেরত চান। এসময় জাহিদসহ অজ্ঞাতনামা আরও সাত-আটজন দুষ্কৃতিকারী তাকে জোর করে মাইক্রোবাসে তুলে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যান। ঘটনাটি জিম মোবাইল ফোনে তার বাবাকে জানান। এ ঘটনায় জিমের বাবা হিমু বাদী হয়ে জাহিদসহ অজ্ঞাতনামা ১০-১১ জনের বিরুদ্ধে সাতক্ষীরা সদর থানায় অপহরণ মামলা দায়ের করেন।

অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ভিকটিমকে উদ্ধার ও অপহরণকারীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে জেলা পুলিশের একাধিক দল অভিযান শুরু করে। এক পর্যায়ে বৃহস্পতিবার মামলার প্রধান আসামি জাহিদকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় পুলিশ। তাকে গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তার দেওয়া স্বীকারোক্তি ও তথ্য মতে, জাহিদের ভাড়াটিয়া বাড়ির বিল্ডিংয়ের সামনের মাটি খুঁড়ে অপহৃত জিমের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) হেদায়েত হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মামলার অন্য আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ