চায়ের কাপের মালিকানা নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ

সংঘর্ষে আহত ব্যক্তিরা  © সংগৃহীত

একটি চায়ের কাপের মালিকানা নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে এক নারী ইউপি সদস্যের স্বামী চা দোকানদার মো. ইউছুফসহ ৬ জন আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরএলাহী ইউনিয়নের গাংচিল বাজারের জিরো পয়েন্ট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন আবুল বাশারের ছেলে চা দোকানদার আলমগীর হোসেন (২৮), তার ভাই সেলিম (২০), আলাউদ্দিন (৩০), চরএলাহী ইউনিয়নের মহিলা মেম্বার মায়াধনীর স্বামী মো. ইউছুফ (২৩), তার ভাই আক্তার (৩২) ও সুমন (২০)।

ছুরিকাঘাতে আহত আলমগীরকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপর আহতদেরকে উপজেলার বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, স্থানীয় গাংচিল বাজারের চা দোকানদার ইউছুফ ও আলমগীরের মধ্যে ১টি চায়ের কাপের মালিকানা নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয়ের মধ্যে সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে। এ সময় আলমগীরের ভাই আলা উদ্দিন ইউছুফকে লাঠি দিয়ে মাথায় আঘাত করলে ইউছুফ ছুরি দিয়ে আলমগীরকে হাতে ও পেটে আঘাত করলে সেও গুরুতর আহত হয়।

গুরুতর আহত অবস্থায় আলমগীরকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। অন্যান্য আহতদের স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়।

নোয়াখালী সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা. আজিম জানান, ছুরিকাঘাতে আহত আলমগীর নামে একজন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, বিষয়টি শুনেছি। ওই স্থানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় কেউ অভিযোগ করলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ