প্রধান শিক্ষকসহ দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের মামলা

ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের অভিযোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর সলিমগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। অভিযুক্তরা হলেন- বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আজাহারুল ইসলাম ও সহকারী প্রধান শিক্ষক প্রদীপ কুমার দাস।

তাদের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের নবম ও দশম শ্রেণির কয়েক ছাত্রী যৌনপীড়নের অভিযোগ তুলেছে। এক ছাত্রীর ভাই বাদী হয়ে শনিবার রাতে নবীনগর থানায় এজাহার দায়ের করেন।

ছাত্রীদের অভিযোগ, সহকারী প্রধান শিক্ষক প্রদীপ কুমার বিভিন্ন সময়ে তার কাছে প্রাইভেট পড়তে আসা ছাত্রীদের কৌশলে শরীরে হাতসহ যৌন নিপীড়ন চালিয়েছেন। তার আচরণের কথা যাতে প্রকাশ না করে সেজন্য ছাত্রীদের পরীক্ষায় ফেল করিয়ে দেওয়াসহ নানা ভয়ভীতি দেখান তিনি।

মামলাকারী জানান, সম্প্রতি তার বোনের সঙ্গে ওই শিক্ষক যৌন নিপীড়ন চালালে প্রধান শিক্ষকের কাছে অভিযোগ করা হয়। কিন্তু তিনি কোনো কার্যকর ব্যবস্থা না নিয়ে উল্টো মেয়েরা অসৎ চরিত্রের বলে গালমন্দ করেন। বাধ্য হয়ে তিনি মামলার আশ্রয় নিয়েছেন।

এ ব্যাপারে প্রধান অভিযুক্ত সহকারী প্রধান শিক্ষক প্রদীপ কুমার ও প্রধান শিক্ষক আজাহারুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু তাদের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সাইফুল ইসলাম সোহেল বলেন, এ নিয়ে আমাদের কাছে কেউ কোনো লিখিত অভিযোগ নিয়ে আসেননি। তবে মামলার কথা শুনেছি। তাই রোববার নিজ উদ্যোগে আমরা স্থানীয় সাংসদকে অবহিত করে ম্যানেজিং কমিটির বৈঠক করেছি। বৈঠকে শিক্ষা বোর্ডের নীতিমালা অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে শোকজসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

নবীনগর থানার ওসি রণজিত রায় বলেন, বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে। মামলার তদন্ত ও গ্রেফতার প্রক্রিয়া অব্যাহত আছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ