কুয়েতে করোনার মধ্যেই প্রাণঘাতী জায়ান্ট হর্নেটের হানা

  © ফাইল ফটো

মহামারি করোনার মধ্যেই কুয়েতবাসীর জন্য নতুন চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এশিয়ান জায়ান্ট হর্নেট ভিমরুল। ভয়ংকর এই ভিমরুলের বেশকিছু ভিডিও প্রকাশ পেয়েছে সাম্প্রতি। এমনিতেই চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এই ভিমরুল তার মধ্যে ভয়ংকর প্রজাতির এই ভিমরুল মৌ মাছি চাষের জন্য হুমকির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

দেখতে কালো ও কমলা রঙ এর মিশ্রণের ডোরা কাটা জায়ান্ট হর্নেট ৫ সেন্টিমিটারের বেশি লম্বা, সঙ্গে রয়েছে হুল। এরা প্রচণ্ড আক্রমণাত্বক। ওয়াশিংটনের স্টেট ইউনিভার্সিটির গবেষক বলছেন, এই হর্নেট মানুষের জীবনের জন্য হুমকি। এর জের ধরেই সতর্ক থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশ্লেষকরা।

তবে মৌমাছি, এই জাতের ভিমরুলের মূল লক্ষ্য থাকে। এই জাতের ভিমরুলের প্রধান খাবার মূলত মৌমাছি। এদের প্রচন্ড শক্তিশালী চোয়াল রয়েছে। ফলে এরা যখন ঝাঁক বেঁধে কোনো মৌচাকে আক্রমণ করে তখন প্রায় সব মৌমাছিকেই মেরে ফেলে। এমনকি মৌমাছির লার্ভাকেও এরা খেয়ে ফেলে। ফলে মৌচাষ ও ফুল চাষের বড় ধরণের ক্ষতি করে এই ভিমরুলগুলো। পূর্ব দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার বনে জায়ান্ট হর্নেটের দেখা মেলে। পোকামাকড় খেয়েই তারা বেচে থাকে।

পতঙ্গ আক্রমণের সময় নিউরোটক্সিন নামের এক ধরণের বিষ নির্গত করে জায়ান্ট হর্নেট। এর বিষাক্ত কামড়ে মৃত্যুও হতে পারে। এমনকি এর বিষ মৌমাছির তুলনায় সাত গুণ বেশি। গরমের শেষের দিকে মূলত এই ভিন্ন প্রজাতির ভিমরুলের দেখা মেলে।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ