কাশ্মীরে ভারতীয় সেনার হাতে হিজবুল কমান্ডারসহ নিহত ৩

  © এনডিটিভি

ভারতশাসিত জম্মু ও কাশ্মীরের দোদা জেলাকে পুরোপুরি ‘জঙ্গিমুক্ত’ করার ঘোষণা দিয়েছে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী। আজ সোমবার সকালে অনন্তনাগ জেলায় সেনার সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে মারা গেছেন হিজবুল মুজাহিদিনের কমান্ডার মাসুদ আহমেদ ভাটসহ ৩ জন।

পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ওই হিজবুল নেতা ও তার সহযোগীদের মৃত্যুর ফলে গোটা দোদা জেলা এখন জঙ্গিমুক্ত। আজ সোমবার ভোররাত থেকেই ভারতীয় সেনাবাহিনী, জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ এবং সিআরপিএফ একসঙ্গে মিলে এই অভিযান শুরু করে। ৩ জনের মৃত্যুর পর ওই এনকাউন্টারের জায়গা থেকে একটি একে ৪৭ রাইফেল এবং দুটি পিস্তল উদ্ধার করা গেছে বলে জানিয়েছে সেনাবাহিনী।

পুলিশ জানিয়েছে, ‘১৯ আরআর ইউনিট, সিআরপিএফ ও অনন্তনাগ পুলিশের সহায়তায় খুল্ল চৌহর অনন্তনাগে যে অভিযান চালানো হয় তাতে দুই লস্কর-ই-তৈয়বা জঙ্গি এবং এক হিজবুল মুজাহিদিন কমান্ডার মাসুদকে হত্যা করা সম্ভব হয়েছে। জম্মু জোনের দোদা জেলা এখন পুরোপুরি জঙ্গিমুক্ত হয়ে গেছে।

‘মাসুদের বিরুদ্ধে আগে দোদা পুলিশের কাছে একটি ধর্ষণের মামলা দায়ের করা হয়েছিল এবং তখন থেকেই পলাতক ছিল সে। পরে সে হিজবুল মুজাহিদিনে যোগ দেয় এবং কাশ্মীরে জঙ্গি কার্যকলাপের সঙ্গে যুক্ত হয়ে পড়ে’, জানান জম্মু ও কাশ্মীরের পুলিশ প্রধান দিলবাগ সিং।

গত শনিবারই জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ জানিয়েছিল, দক্ষিণ কাশ্মীরের ওই এলাকায় ২৯ জন বিদেশি জঙ্গি সক্রিয় রয়েছে। ‘কোকারনাগ, ত্রাল ও খ্রেউয়ের কাছাকাছি জায়গায় বিদেশি জঙ্গিদের গতিবিধি টের পাওয়া গেছে। দক্ষিণ কাশ্মীরে প্রায় ২৯ জন বিদেশি জঙ্গি সক্রিয় রয়েছে। আমরা ওদের খতম করবো’, একথা জানিয়েছিলেন কাশ্মীরের আইজিপি বিজয় কুমার।

পুলিশ কর্মকর্তা আরও যোগ করেছেন, পুলওয়ামা জেলার ত্রাল এলাকা থেকে হিজবুল মুজাহিদকে ‘নিশ্চিহ্ন করে’ সুরক্ষা বাহিনী একটি বিশাল সাফল্য অর্জন করেছে এবং এর লক্ষ্য দক্ষিণ কাশ্মীর থেকে সন্ত্রাসবাদ নির্মূল করা। জম্মু ও কাশ্মীরের পুলিশ প্রধান দিলবাগ সিং গত সপ্তাহেই দাবি করেছিলেন, চলতি বছর জম্মু ও কাশ্মীরে ১০০ জনেরও বেশি জঙ্গিকে হত্যা করা সম্ভব হয়েছে। খবর: এনডিটিভি।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ