করোনায় কোয়ারেন্টিনে স্বামী, প্রেমিকের হাত ধরে পালালেন স্ত্রী!

করোনায় কোয়ারেন্টিনে স্বামী, প্রেমিকের হাত ধরে পালালেন স্ত্রী!
  © প্রতীকী ছবি

করোনা পরিস্থিতির মধ্যে হাজারো বাধা ডিঙিয়ে দিল্লি থেকে মধ্য প্রদেশ রাজ্যের ছাতারপুরের মুন্দেরি গ্রামে বাড়ি ফিরেছিলেন এক শ্রমিক। পরে প্রশাসনের নির্দেশে কোয়ারেন্টিনে যেতে হয় তাকে। এই সুযোগে নিয়েই ওই ব্যক্তির স্ত্রী পালিয়ে গেছেন পরকীয়া প্রেমিকের হাত ধরে।

ভারতের মধ্য প্রদেশের এক ব্যক্তিকে এমন বাস্তবতার সাক্ষী হতে হয়েছে। পরে ৫০ বছর বয়সী ওই শ্রমিক নিকটস্থ থানায় অভিযোগ করেছেন। এরপর থেকে তিন সন্তানের মা ওই নারীকে (৪৬) খুঁজছে পুলিশ।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, দিল্লিতে কাজ করতেন ওই ব্যক্তি। কর্মস্থলের পাশেই বাসা নিয়ে থাকতেন। ওই বাসায় সঙ্গে ছিলেন তার স্ত্রী ও সন্তানরা। কিন্তু দেড় বছর আগে স্ত্রী-সন্তানদের গ্রামে পাঠিয়ে দেন।

এরমধ্যে মার্চে ভারতজুড়ে লকডাউন পরিস্থিতি তৈরি হলে আটকা পড়েন ওই ব্যক্তিও। শেষে সরকার তাদেরকে ঘরে ফেরাতে স্পেশাল ট্রেন চালু করলে গ্রামের বাড়ি ফেরেন তিন সন্তানের জনক। গত ১৯ মে বাড়ি ফেরার পর ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে পাঠায় স্থানীয় প্রশাসন। নিজের বাড়িতে একটি কক্ষে থাকছিলেন তিনি।

পাশেই আরেকটি কক্ষে থাকতেন তার স্ত্রী ও সন্তানরা। এরমধ্যে ২৪ মে ঘুম থেকে উঠে দেখেন তার কক্ষ বাইরে থেকে তালা দেওয়া। তখন কৌশলে কক্ষ থেকে বেরিয়ে স্ত্রী-সন্তানদের খুঁজতে থাকেন। একপর্যায়ে সন্তানদের পেলেও স্ত্রীর খোঁজ পাচ্ছিলেন না।

পরে স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে বুঝতে পারেন, তার অনুপস্থিতিতে গ্রামের বাড়িতে পরকীয়ায় জড়িয়েছেন স্ত্রী। সেই প্রেমিকের হাত ধরেই পালিয়ে গেছেন তিনি।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ