করোনায় পরবর্তী মৃত্যুপুরী হবে দক্ষিণ এশিয়া: ডব্লিউএইচও

  © ফাইল ফটো

চীনের উহান থেকে ছড়ানো প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে এখন টালমাটাল গোটা বিশ্ব। ইতিমধ্যে ১০ লাখেরও বেশি মানুষ এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। প্রাণহানিও ৫০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। চীনে প্রথমে করোনাভাইরাস ভয়াবহ আকার ধারণ করলেও পরে তা ছড়িয়ে পড়ে ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রে।

চীনে হাজারো মানুষের মৃত্যুর পর এখন ইউরোপ ও আমেরিকায় মৃত্যুপুরী তৈরি করেছে করোনাভাইরাস। এরপর দক্ষিণ এশিয়া করোনার কারণে নতুন মৃত্যুপুরী হতে যাচ্ছে বলে সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা-ডব্লিউএইচও।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ভারতে ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে পাঁচ শতাধিক মানুষ। আর নতুন করে প্রাণ গেছে ১৪ জনের। ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দুই হাজার ৫৬৭ জন।

এর মধ্যে সর্বশেষ ৪৮ ঘণ্টায় সংক্রমিত হয়েছে এক হাজারের বেশি। এর বেশিরভাগই দিল্লির নিজামুদ্দিন মার্কাজে তাবলিগ সমাবেশে অংশ নেয়া মুসল্লি। ভারতে প্রথম করোনা ধরা পড়ে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি। দেশটিতে মারা গেছে ৭২ জন।

এদিকে, এ অঞ্চলের আরেক দেশ পাকিস্তানে এক দিনেই আক্রান্ত হয়েছেন ৩০৩ জন। দেশটিতে মোট আক্রান্ত হয়েছেন দুই হাজার ৪৫০ জন। এর মধ্যে পাঞ্জাবে প্রায় এক হাজার। পাকিস্তানে প্রাণহানির সংখ্যা ৩৪। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশেও আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ