হাসপাতালে করোনার চিকিৎসা সরঞ্জাম দান করলেন রোনালদো

  © সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের আতঙ্ক এখন পুরো বিশ্বে। এরই মধ্যে এ মহামারির কারণে বন্ধ হয়ে গেছে সব ধরনের খেলা। কাছের এক সতীর্থ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর বেশ কিছুদিন ধরে কোয়ারেন্টিনে আছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এই ভয়াল দুঃসময়ে এবার এগিয়ে এসেছেন অন্যতম সেরা এই ফুটবলার। নিজ দেশ পর্তুগালের একাধিক হাসপাতালে দান করছেন জীবন বাঁচানোর বিপুল সরঞ্জাম।

রোনালদো ও ফুটবল এজেন্ট জর্জ মেন্ডেস মিলে এই উদ্যোগ নেন। তারা পর্তুগালের সবচেয়ে বড় শহর লিসবনে সান্তা মারিয়া হাসপাতালে ২০টি আইসিইউ বেড, ভেন্টিলেটর, হার্ট মনিটর, ইনফিউশন পাম্প ও সিরিঞ্জ দেন বলে জানায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর পর্তোর সান্ত আন্টরিও হাসপাতালে ১৫টি ইন্টেনসিভ কেয়ার বেড (আইসিইউ), ভীষণ প্রয়োজনীয় ভেন্টিলেটর, মনিটর, এবং অন্যান্য যন্ত্রপাতি দান করেছেন। এতে তৈরি হয় তিনটি ওয়ার্ড। যার নাম রাখা হয়েছে রোনালদো ও মেন্ডেসের নামে।

সান্ট আন্টরিও হাসপাতাল পরিচালনা কমিটির সভাপতি পাউলো বারবসা এসব প্রয়োজনীয় জিনিস পেয়ে কৃতজ্ঞতা জানান রোনালদোদের প্রতি, ‘রোনালদো ও মেন্ডেসকে ধন্যবাদ জানাতে চাই তাদের উদ্যোগের জন্য। দেশের প্রয়োজনে তাদের এগিয়ে আসা সবাইকে অনুপ্রাণিত করবে।’

এখন পর্যন্ত পর্তুগালে নতুন করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৩৬২ জন। মারা গেছেন ২৯ জন। ইতালি ও স্পেনের পার্শ্ববর্তী দেশ হওয়ার পরও এই সংখ্যা তাদের তুলনায় বেশ কম। তবে ক্রমেই বাড়ছে শঙ্কা। স্বাভাবিক কারণেই নিতে হচ্ছে বাড়তি প্রস্তুতি।

চলমান সংকটে পর্তুগালের প্রধানমন্ত্রী জানান পুরো দেশের সরকারি হাসপাতালে ১১৪২টি ভেন্টিলেটর আর বেসরকারি হাসপাতালে মাত্র ২৫০টি ভেন্টিলেটর আছে। জরুরী ভিত্তিতে চীন থেকে ৫০০ ভেন্টিলেটর কেনার চিন্তা করেছে পর্তুগাল। এরমধ্যে এসব গুরুত্বপূর্ণ চিকিৎসা সরঞ্জাম নিয়ে দেশের পাশে দাঁড়ালেন বিশ্ব ফুটবলের বড় নাম রোনালদো।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ