ডিজিটাল সেন্টারের ৯ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

  © টিডিসি ফটো

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আওতাধীন এবং মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও ইউএনডিপির সহায়তায় পরিচালিত এটুআই-এর উদ্যোগে ডিজিটাল সেন্টারের ৯ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে। সোমবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত আইসিটি টাওয়ারে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক কেক কেটে দিবসটি উদযাপন করেন।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত ইনোভেশন টক অনুষ্ঠানে এটুআই-এর পলিসি অ্যাডভাইজর জনাব আনীর চৌধুরী এর সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, এটুআই’র প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ড. মো: আব্দুল মান্নান।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেন, ‘স্থানীয় সরকারের সাথে আইসিটি বিভাগের নাগরিক সেবার ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার জন্য যৌথভাবে কাজ করতে হবে। ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে শহরের সেবা গ্রামে পৌঁছে দিতে পারলেই জনগণের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধির পাশাপাশি শহর গ্রামের ব্যবধান কমে আসবে।’ এর মাধ্যমে দেশের সুষম ও টেকসই উন্নয়ন সাধিত হবে বলে আশা করেন মাননীয় মন্ত্রী।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘বাড়ছে সেবার বহর গ্রাম হবে শহর’ এই শ্লোগানের উপর ভিত্তি করে সরকার সেবার বহর বৃদ্ধি করতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। সরকারের চূড়ান্ত লক্ষ্য হচ্ছে জনগণের কাছে সরকারি দপ্তরের সেবাসমূহ পৌঁছে দেয়া, যেন জনগণকে এসব দপ্তরে সেবার জন্য ঘুরতে না হয়।

তিনি আরো বলেন, আমরা ইতোমধ্যে সকল সেবাকে একটি ইনটিগ্রেটেড প্ল্যাটফর্ম ‘একসেবা’-এর আওতায় নিয়ে এসে জনগণের সেবা নিশ্চিতে কাজ শুরু করেছি। একইসাথে বিভিন্ন পরিষেবা বিল প্রদানে ‘একপে’ নামক একটি প্ল্যাটফর্ম এবং গ্রামের পণ্য শহরে ও শহরের পণ্য গ্রামে ছড়িয়ে দেয়ার নিমিত্তে একটি সমন্বিত ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম ‘একশপ’ প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ ইতোমধ্যে উদ্বোধন করেছেন।

অনুষ্ঠানে আইসিটি বিভাগ, স্থানীয় সরকার বিভাগ এবং এটুআই-এর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ ও গণমাধ্যমকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলার উদ্যোক্তাগণও উপস্থিত ছিলেন। এ সময় উপস্থিত অতিথিরা দেশব্যাপী উদ্যোক্তাদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর প্রদান করেন এবং ডিজিটাল সেন্টারের জন্য আগামীদিনের দিক-নির্দেশনা প্রদান করেন। সারাদেশ থেকে সফল উদ্যোক্তাগণ অনলাইনে অনুষ্ঠানে সংযুক্ত ছিলেন।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ